বন্ধু নিয়ে হাসির কবিতা মজার কবিতা

বন্ধু নিয়ে হাসির কবিতা মজার কবিতা টি এখানে দিলাম । কবিতা টি একটু বড় । তবে আমার কাছে ভালো লেগছে । তাই আপনাদের সাথেও শেয়ার করলাম । পড়ে দেখুন ভালো লাগবে ।

বন্ধু নিয়ে হাসির কবিতা মজার কবিতা :

বন্ধু তুমি একলা হলে দিও আমায় ডাক,

তোমার সঙ্গে ভাব জমাবো, ভাঙবো তোমার রাগ।

বেলকনিতে দাঁড়িয়ে তোমায় শোনাবো সব জোক,

এক নিমিষেই হারিয়ে যাবে তোমার দু:খ রোগ।

তোমার মন খারাপের দিনে তুমি আমায় সদা পাবে,

তোমায় নিয়ে পাখি রা সব ফুল তুলতে যাবে।

তোমার যত দুঃখে আমি বসাবো সদা ই ভাগ,

তাতেই তোমার কেটে যাবে মন খারাপের দাগ।

বিকেল বেলা আকাশ দেখে করবো মাতামাতি,

রাত্রি হলেই দোকলা শুতে উঠোনে বিছানা পাতি।

রাত্রি জেগে ই হবে যে সব ভুতুড়ে গল্প-সল্প।

হাসি-তামাশা ও চলবে মোদের একটু অল্প অল্প।

ভোর না হতেই ডাকাডাকি করবো তোমায় আমি,

বন্ধুত্বের খুনসুটি টা সদা ই চলবে জানি।

রাস্তা দিয়ে হাঁক দিয়ে বন্ধুদের কে ডেকে,

জলপাই খাব, আমড়া খাব, পেয়ারা খাব মেখে।

ক্লাসে যদি আমার পাশে না ই বস তুমি,

হায়! তবে আমার তুমি কেমন বন্ধু শুনি?!

ক্লাসের ফাঁকে চলবে মোদের আড্ডা-লুটো পুটি,

সবসময় ই গুনছি টাইম, কখন হবে ছুটি?

ছুটি দিতেই এক ছুট্টে পেরিয়ে যাব দোর,

আসুক না বন্যা, সিডর, কালবোশেখী ঝড়!

বাদলা দিনে কাক ভেজা হয়ে ফিরব দু জন বাড়ি,

হোক নাহ!- খেলাম বকা, খেলাম ই একটু ঝাড়ি।

পুকুরে নেমে মাছ ধরতে ভীষণ মজা পাই,

এতো মজা কেন বলো? – আরেহ বন্ধু আছে তাই।

বিকেলে সব বন্ধুর দল ঘুড়ি উড়াতে যাই,

সাথে মোদের এক প্লেট ঘুঘনি-পরোটা চাই।

আবার যখন সাঁঝ নামবে, ফিরবো মোরা বাড়ি,

অপেক্ষায় থাকি পরের দিনের, কখন হবে যে দিন ভারি?!

রাত্রি নামলে চোখ দু টো হায় বন্ধ হয়ে যায়,

স্বপ্নে ও যে দেখি তোমায়, বন্ধু তোমায় চাই।

বন্ধুর মতো এই দুনিয়ায় আর তো কিছুই নাই।

বন্ধু নিয়ে হাসির কবিতা

ছেলে বেলার স্মৃতি গুলো বড্ড মনে পড়ে,

সেগুলো তো দু চোখ বেয়ে অশ্রু হয়ে ঝরে।

আরে এখনকার বন্ধু গুলো ও কম কীসে ভাই,

এরা আর ও বন্ধু সুলভ, আমি ও বলি তাই।

স্কুল পালানোর স্মৃতি গুলো মনের মাঝে ভীড়ে,

আসুক না সেই দিন বারেবার, আসুক না ফের ফিরে!

পুতুল খেলার দিন গুলো তো সোনায় রাঙা দিন,

সেই দিনের ই ঋণী আমি, জমেছে বড় ই ঋণ।

মায়ের হাতের বকুনি আর ঝাল মাখানো ভাত,

বন্ধুর সাথে ই ভাগ করে খেতাম প্রতি রাত।

এখনকার বন্ধুগুলো মুঠো ফোনে ই বন্দী,

রোজি গড়ি প্ল্যান, আঁটি দেখা করার ফন্দি।

রোজ না দেখা হলেও তারা রয়ে যায় মনে,

তাদের কথা ই মনে পড়ে, প্রতি ক্ষণে ক্ষণে।

ফুচকা আর ভেলপুরি তে আটকে থাকে মুখ,

বন্ধুর আড্ডায় মাতি তখন, বাড়ে আর ও সুখ।

হুড তোলা রিকশায় মোরা ঘুরি সারাক্ষণ,

তাতে ওগো পড়ায় যে হায়, বসে না আর মন।

কী করবো?- এই দিন তো বন্ধুদের ই দিন।

তাদের সাথে ই ঘুরবো আমি, নাচবো তা ধিন ধিন।

ঝাল মুড়ি খেতে খেতে হবে গল্প গুজব,

এই সুযোগ ই খুঁজি আমি, খুঁজি এই সুযোগ।

বন্ধুর কোনো অসুখ হলে ছুট্টে চলে যাই,

বন্ধু ই সবার উপর, তার ওপর আর নাই।

বন্ধু ই মোর সকাল, বিকেল; বন্ধু ই মোর রাত,

বন্ধু ই মোর আদর-আবেগ, বন্ধু ই মোর সাথ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x