সমুদ্র গবেষণার জন্য তৈরি হলো স্কুইড রোবট

বিজ্ঞানীরা সমুদ্র নিয়ে প্রতিনিয়ত গবেষণার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এবং তাদের গবেষণায় বেড়িয়ে আসছে সমুদ্র সম্পর্কে নতুন নতুন বহু তথ্য। বিজ্ঞানীদের এসব গবেষণার কাজে ব্যাবহৃত হয় বিভিন্ন ধরনের ভারী যন্ত্রপাতি এবং রোবট। যার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয় সমুদ্রের তলদেশের প্রবাল এবং জীববৈচিত্র্যের। এবং এই কথা চিন্তা করেই ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একদল শিক্ষার্থী তৈরি করেছে স্কুইড আকৃতির নরম রোবট। তাদের দাবি তাদের তৈরি এই রোবটটি সম্পুর্ন পরিবেশ বান্ধব। যার মাধ্যমে নিশ্চিন্তে এই রোবটটি ব্যাবহার করে সমুদ্রের তলদেশে গবেষণা কাজ চালানো যাবে কোন প্রকার প্রবাল বা জীববৈচিত্র্যের ক্ষতি না করেই।

তাদের তৈরি এই রোবটটি তৈরি করা হয়েছে সম্পুর্ন স্কুইডের আদলে। সমুদ্রের তলদেশে দ্রুত চলাচলের জন্য স্কুইড যেসকল উপায় অবলম্বন করে তা দেখেই তারা এটি তৈরি করেন বলে জানান। এতে ব্যাবহার করা হয়েছে দুইটি প্লেট যার সাথে সংযুক্ত রয়েছে নজেল যার মাধ্যমে রোবটটি ভিতরে পানি প্রবেশ করায় এবং বের করে দেয়। এছাড়াও এতে ব্যাবহার করা হয়েছে উন্নত প্রযুক্তির বিভিন্ন সেন্সর ও ক্যামেরা। যার মাধ্যমে সমুদ্র তলদেশের ছবি দেখতে পারবেন বিজ্ঞানীরা বলে জানান গবেষক দলের সদস্য ও মেকানিকাল অ্যান্ড অ্যারোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অধ্যাপক মাইকেল টি টলি।

Read More >>  Impact of science and technology on human life

তাদের তৈরি এই রোবটটি বানানো হয়েছে অ্যাক্রেলিক পলিমার, থ্রিডি প্রিন্টিং ও লেজার-কাট যন্ত্রাংশের সহায়তায়। এবং এটির সম্পুর্ন বডি নরম করে তৈরি করার ফলে এর গতির ক্ষেত্রে ছাড় দিতেই হয়েছে নির্মাতাদের। তারা জানান তাদের তৈরি এই রোবটটি ঘন্টায় মাত্র ১/২ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে সক্ষম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *