মধ্যবিত্ত ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস

আজকে আমরা মধ্যবিত্ত ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস লিখবো । মধ্যবিত্ত ছেলেদের কষ্টের কথা লিখতে গেলে অনেক কিছুই লিখা যায় । কারণ তাদের কষ্টের কোন সীমা থাকে না । জন্মের পর থেকেই তাদের জীবন সংগ্রাম শুরু হয়ে যায় । আর এই সংগ্রাম করতে গিয়ে কেউ নিজেকে ভালো রাখতে কিন্তু বেশীর ভাগ ছেলেরা চলে যায় অন্যায়ের পথে ।মধ্যবিত্ত ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস

যত কষ্টই হোক আমাদের সবার এগিয়ে যেতে হবে, তবে সেটা অন্যায় পথে নয় । সত্যের পথে থেকে নিজেকে এগিয়ে নেয়াই হলো সফলতা । মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলেদের কষ্টের ইতিহাস অনেক লম্বা হয় । তারা জীবনে কি পরিমান কষ্ট করে তা কেউ কোন দিন উপলব্ধি করতে পারে না । তা যা হোক আসুন তাহলে শুরু করা যাক ।

মধ্যবিত্ত ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস :

১. মধ্যবিত্ত ছেলেদের কখনো স্বপ্ন থাকতে হয় না। কারণ তাদের প্রাপ্তির খাতায় বরাবরি শূন্য থাকে।

২. মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে ভাগ্যের সন্ধানে খোঁজ করতে করতে জীবনটা পার করে দেয়। তখন তার কাছে সুখ আর দুঃখ দুটোই সমান হয়ে যায় আর দায়িত্বই বড় হয়ে দাঁড়ায়।

৩. মধ্যবিত্ত ছেলেদের জীবনে প্রেম আবার কি বস্তু? প্রেম মানেই বিলাসিতা।

৪. আমাদের মত মধ্যবিত্ত ছেলেদের খুব বড় একটা স্বপ্ন থাকে নিজের বাবা-মায়ের সমস্ত ইচ্ছে গুলো পূরণ করা। অথচ যার বেশিরভাগ গুলোই করা হয়ে ওঠে না।

৫. হিসেব কষে ছক বাধা জীবন যাদের নিত্য সঙ্গী। তাদের কখনো আবেগ রাখা মানায় না।

৬. ঠোঁটে কৃত্রিম বিজয়ের হাসি নিয়ে হেঁটে যাওয়া ছেলেটা জানে সে মধ্যবিত্ত। তার জীবনে কোনো কিছু নিয়ে খুব বেশি আশা থাকতে নেই।

৭. আশা নিরাশার দ্বন্দ্বে দুলতে থাকা মধ্যবিত্ত ছেলেটার কাছে পকেটে টাকা থাকাটা খুবই জরুরী। বরং টাকা হাতে থাকলেই তার মনের সাহস বেড়ে যায়।

৮. অনেকখানি রাস্তা হেটে গিয়ে কিছুটা ভাড়া বাঁচিয়ে চলা মধ্যবিত্ত ছেলেটা, কখনোই বন্ধুদের সাথে হ্যাংআউটে যেতে চায় না। তাই তার বন্ধুদের তিরস্কার গুলো গায়ে মাখে না।

৯. মধ্যবিত্ত ঘরের জন্ম নেয়ার ছেলেটা খুব দ্রুতই দায়িত্বশীল হতে শিখে যায়। খুব অল্প বয়স থেকে সে নিজের চাহিদা কমাতে শুরু করে।

১০. মধ্যবিত্ত ছেলেদের টিউশন থেকে জমানো টাকা দিয়ে বোনের জন্য কিছু কিনে দেওয়া মানে খুব বড় কিছু সুখের মুহূর্ত। কত কষ্টের বিনিময়ে এই সুখ কিনতে পাওয়া যায় তা শুধু মধ্যবিত্ত ছেলেরাই জানে।

Read More:>>> মধ্যবিত্ত নিয়ে উক্তি

মধ্যবিত্ত ছেলেদের কষ্টের কথা :

মধ্যবিত্ত ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস ও কিছু কথা এখানে দেয়া হলো । উপরের স্ট্যাটাস গুলো থেকে যদি আপনি আপনার পছন্দের স্ট্যাটাস খুঁজে না পান, তাহলে এখান থেকে নিয়ে নিতে পারেন । যদি ভালো কিছু কথা পেতে চান, তাহলে এগুলো দেখুন । এখানে আমরা আরো নতুন কিছু স্ট্যাটাস যোগ করেছি শুধুমাত্র আপনাদের জন্য । আশাকরি ভালো লাগবে । চলুন তাহলে শুরু করা যাক ।

১. মনের মধ্যে হাজারো ঝড় ঝাপটা লুকিয়ে নিজের চোখে শ্রাবণ মেঘ লুকিয়ে রাখা ছেলেটা, মধ্যবিত্ত পরিবারের বড় ছেলে। তিনটে শার্ট আর দুটো প্যান্ট দিয়ে সে অনেকদিন চালিয়ে নিতে পারে।

২. চার দেয়ালে বন্দী হয়ে একাকিত্বের সঙ্গে হেরে যাওয়া মধ্যবিত্ত ছেলেটা রাতের বেলা নিঃশব্দে কেঁদে ওঠে। সে জানে তার এই কান্নার শব্দ কখনোই দেয়ালের বাইরে যেতে দেওয়া যাবে না।

৩. সমাজে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর ছেলেরা সবসময় আত্মত্যাগের দিক থেকে এগিয়ে। কারণ তাদের চাকরি পেতে পেতে প্রেমিকার বিয়ের সময় ঘনিয়ে আসে।

৪. “মা আমার চাকরিটা হয়ে গেছে”, এই কথাটা বলার জন্য কত মধ্যবিত্ত ছেলে রাত জাগে। কত নির্ঘুম রাত পার করে দেয় তারা।

৫. মধ্যবিত্ত একটা ছেলের খুব বড় কিছু স্বপ্ন থাকে না। বরং তার ছোট স্বপ্ন থাকে যে, সে তার বাবা-মা, ভাই-বোনকে নিয়ে একটা ছোট্ট বাড়িতে সচ্ছল জীবন যাপন করবে।

৬. মধ্যবিত্ত ছেলেদের জীবনে উৎসবের আমেজ কখনোই ছুঁয়ে যায় না। বরং যেকোনো উৎসবে তারা এই মাসের খরচের হিসাবটা আগে থেকেই অনুমান করতে থাকে।

৭. মধ্যবিত্ত পরিবারের বড় ছেলেটা ঈদে সবার জন্য জামা কাপড় কিনে দিয়ে নিজের জন্য কিছু কিনতেই ভুলে যায়। প্রকৃত অর্থে এসে ভুলে যাওয়ার বাহানা করে।

৮. আমরা যারা মধ্যবিত্ত ছেলে তাদের একটা বাইকের খুব সখ থাকে। শুধু সাধ্য থাকেনা।

শেষ কিছু কথা :

প্রিয় বন্ধুরা, প্রথমে জানাবেন আমাদের লিখা এই মধ্যবিত্ত ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস ও কথা গুলো আপনাদের কাছে কেমন লাগলো । যদি ভালো লাগে তাহলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন । আমরা এখানে চেষ্টা করেছি সব ভালো স্ট্যাটাস গুলো আপনাদের দিতে । যদি সময় থাকে, তাহলে আমাদের লিখা নিচের পোস্ট গুলো পড়ে দেখবেন । আশাকরি খারাফ লাগবে না । আমাদের লিখা আমরা সব সময় ভালো করার চেষ্টা করি । কারণ আপনাদের কাছে ভালো লাগলে এবং আপনাদের কাজে আসলেই আমাদের এত লিখার সার্থকতা । সবাই ভালো থাকবেন । ধন্যবাদ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x