নিস্তব্ধতা নিয়ে ক্যাপশন

নিস্তব্ধতা নিয়ে ক্যাপশন নিয়ে আমাদের আজকের পোস্ট । অনেক সুন্দর একটি কথা হলো নিস্তব্ধতা । এই কথার মাধ্যমে আমরা অনেক কিছু বুঝতে পারি । নিস্তব্ধতা মানে চুপ থাকা নয় । এর মানে অনেক কিছু, যা ভাষায় প্রকাশ করার মত নয় । আসুন তাহলে দেখে নেয়া যাক আমাদের লেখা সেই স্ট্যাটাস গুলো ।নিস্তব্ধতা নিয়ে ক্যাপশন

নিস্তব্ধতা নিয়ে ক্যাপশন :

১. আপনার আনন্দ, উচ্ছ্বাসের সময় দেখবেন আপনার চারপাশে অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী। কিন্তু দিন শেষের নিস্তব্ধতায় আপনি একা, শুধুই একা।

২. তর্ক সবসময় শ্রেষ্ঠ হয় না। অনেক সময় ঘন্টার পর ঘন্টা তর্ক করেও যা বোঝানো যায় না সেটা কিছুটা সময়ের নিস্তব্ধতাই তার চেয়ে অনেক বেশি বলে দিতে পারে।

৩. চিৎকার করে যে সুর, গান প্রকাশ করা হয় তা তো সকলেই শুনতে পায়। কিন্ত নিস্তব্ধতার যে সুর, যে আবেদন তা বোঝার ক্ষমতা সকলের থাকে না৷

৪. যদি সুখী হতে চান, তবে নিজের আলাদা একটি জগৎ তৈরি করুন। কারণ জীবনের বেশিরভাগ সময় আপনাকে কাটাতে হবে নিস্তব্ধতায়, একাকী অন্ধকারে।

৫. আপনার চিৎকার করে বলা কথা তো সকলেই বোঝে, কিন্তু যে আপনার না বলা কথা, আপনার নিস্তব্ধতার অর্থ অবধি বুঝতে পারে, সেই আপনার প্রকৃত আপন জন।

Read More  বাস্তবতা নিয়ে কিছু উক্তি

৬. মানুষের প্রকৃত অবস্থা জানতে চান? তবে গভীর রাতের নিস্তব্ধতায় রাস্তায় বেরিয়ে পড়ুন। দেখবেন কোথাও উৎসবের রঙিন আলো, আবার কোথাও কংক্রিটের উপর শুয়ে আছে শিশু।

৭. কোনোকিছুই আমার কাছে তোমার স্মৃতি বয়ে আনে না। হিমেল হাওয়াও না, বসন্তের রঙিন ফুলও না। শুধুমাত্র রাতের নিস্তব্ধতা আমায় মনে করতে বাধ্য করে, “আমার একটা মানুষ ছিলো”।

৮. কিছু মুহূর্তের নিস্তব্ধতা আমাদের যে শিক্ষা দিয়ে যায়, তা ঘন্টার পর ঘন্টা শোনা ভাষণও অনেক সময় দিতে পারে না।

৯. আপনার নিজের সমস্যা নিয়ে লোকের সামনে যত আলোচনা করবেন, লোক ততই পেয়ে বসবে। এর চেয়ে নিস্তব্ধতায়, নিরালায় বসে নিজেই সমস্যা নিয়ে চিন্তা করুন, সমাধান পেয়ে যাবেন।

১০. যখন কোনো গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত আপনাকে নিতে হবে তখন হট্টগোল এড়িয়ে চলতে চেষ্টা করুন। লোকের ভিড়ের মধ্যে, হঠকারিতার সাথে নেয়া সিদ্ধান্ত আপনাকে কখনোই ভালো ফল দিবে না। সিদ্ধান্ত নিতে হবে নিস্তব্ধতার মধ্যে, নিরালায়।

১১. মূর্খের সাথে যুক্তিহীন তর্কে নিজেকে কখনোই জড়াবেন না। বরং তার চেয়ে নিস্তব্ধতাকে মেনে নিন। দেখবেন শেষ অবধি আপনিই বিজয়ী।

Read More  নদী নিয়ে স্ট্যাটাস

১২. আপনি যে ভাষা প্রকাশ করেন না, যে কথা মুখে বলেন না, যে ভাষা শুধু আপনার চোখে ধরা পড়ে, যার প্রকাশ হয় নিস্তব্ধতার মধ্যে তা বোঝার সামর্থ্য সকলের থাকে না। যার প্রকৃতি আপনার আপনজন, শুধু তারাই এ ভাষা বুঝবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x