নিয়মিত ব্যায়াম এর স্বাস্থ্য সুবিধাসমূহ কি কি

আপনি কি সুস্থ থাকতে চান এবং ভালো মেজাজের অধিকারী হতে চান? যদি আপনার উত্তর হ্যাঁ হয়, তাহলে আপনার জন্য সর্বোত্তম উপায় হল ব্যায়াম। নিয়মিত ব্যায়ামের উপকারিতা কেউ অস্বীকার করতে পারবে না। কিন্তু অনেকেই জানেন না ব্যায়ামের স্বাস্থ্য উপকারিতা কী।নিয়মিত ব্যায়াম এর স্বাস্থ্য সুবিধাসমূহ
প্রায় সব চিকিৎসকই সবাইকে নিয়মিত ব্যায়াম করতে উৎসাহিত করেন। আপনি যদি নিজেকে শারীরিক এবং মানসিকভাবে সুস্থ রাখতে চান তবে ব্যায়াম ছাড়া অন্য কোন উপযুক্ত বিকল্প নেই। এর অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে যা হয়তো অনেকেই জানেন না। তাই সেই কথা মাথায় রেখেই আমরা এখানে তুলে ধরব ব্যায়ামের স্বাস্থ্য উপকারিতাগুলো কী কী। চলুন শুরু করা যাক.

ওজন কমাতে সাহায্য করে:

প্রত্যেককে নিয়মিত ব্যায়াম করতে উৎসাহিত করা হয় এবং এর প্রধান কারণ হল এটি আমাদের শরীরকে ক্যালোরি পোড়াতে এবং ওজন কমাতে সাহায্য করে। আমরা সবাই ফিট থাকতে পছন্দ করি। আর ফিট থাকার জন্য ওজন নিয়ন্ত্রণ করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সাধারণত, সবাই ডায়েটিংয়ের মাধ্যমে ওজন হ্রাস করে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত, শুধুমাত্র ডায়েটিংয়ের মাধ্যমে ওজন কমানো সম্ভব নয়। ডায়েট করার পাশাপাশি নিয়মিত ব্যায়ামও অপরিহার্য।
কিছু গবেষণায় দেখা গেছে যে নিষ্ক্রিয়তা ওজন বৃদ্ধির একটি উল্লেখযোগ্য কারণ। ডায়েটিং করার সময় ক্যালোরির সংখ্যা হ্রাস করা আপনার বিপাকীয় হারকে কমিয়ে দিতে পারে, যা আপনার ওজন কমানোর প্রক্রিয়াকে ধীর করে দেবে। পরিবর্তে, আপনি যদি নিয়মিত ব্যায়ামের উপর মনোযোগ দেন তবে এটি আপনার বিপাকীয় হার বাড়িয়ে দ্রুত ওজন কমাতে সাহায্য করবে।

শক্তির মাত্রা বাড়ায়:

যারা তাদের শক্তির মাত্রা বাড়াতে চান তাদের জন্য ব্যায়াম সেরা উপায় হতে পারে। এটি আপনার ক্লান্তি দূর করতে কার্যকর হতে পারে। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে যে ছয় সপ্তাহের নিয়মিত অনুশীলন ক্রমাগত ক্লান্তির অনুভূতি কমাতে সাহায্য করতে পারে। যাদের দীর্ঘস্থায়ী ক্লান্তি সিন্ড্রোম (CFS) আছে তাদের শক্তির মাত্রা বৃদ্ধির জন্য ব্যায়াম একটি চমৎকার সমাধান হতে পারে।
কখনও কখনও চিকিত্সকরা রোগীদের বিভিন্ন চিকিত্সার পরিবর্তে নিয়মিত ব্যায়ামের দিকে মনোনিবেশ করতে বলেন। আপনি শুনে অবাক হতে পারেন যে এটি কোলন, স্তন, জরায়ু এবং ফুসফুসের মতো ক্যান্সার প্রতিরোধে বিস্ময়করভাবে কাজ করে।

মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য এবং স্মৃতিশক্তি উন্নত করুন:

আপনি কি মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য এবং স্মৃতিশক্তি উন্নত করতে জানেন? যখন আমাদের হৃদস্পন্দন বৃদ্ধি পায়, তখন এটি মস্তিষ্কে রক্ত ​​এবং অক্সিজেনের প্রবাহকে উদ্দীপিত করে। এটি হরমোনগুলির উত্পাদনকেও উদ্দীপিত করতে পারে যা মস্তিষ্কের কোষগুলিকে বৃদ্ধি পেতে সহায়তা করে। এটি আপনার মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে এবং আপনার স্মৃতিশক্তিকে আরও দক্ষ করে তোলে। আপনি ব্যায়ামের মাধ্যমে এই প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করতে পারেন।
দীর্ঘমেয়াদে যেকোনো রোগ প্রতিরোধ করার জন্যও ব্যায়াম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কারণ আপনার মস্তিষ্ক এই রোগগুলির সাথে যুক্ত। সুতরাং, আপনি যখন নিয়মিত ব্যায়াম করেন, এটি আপনাকে আপনার মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে এবং সেই রোগগুলি থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করবে।

ব্যথা কমাতে সাহায্য করে:

অনেক চিকিত্সক যে কোনও দীর্ঘস্থায়ী ব্যথার জন্য অস্ত্রোপচারের চেয়ে ব্যায়ামকে বেশি মূল্যায়ন করেন। আপনার কি দীর্ঘস্থায়ী ব্যথা আছে? যদি থেকে থাকে তবে আপনি নিয়মিত ব্যায়াম করতে পারেন, এটি আপনার ব্যথা উপশম করতে কার্যকর হতে পারে।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়:

হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল সঠিক রক্ত ​​সঞ্চালন। রক্ত চলাচলে ব্যাঘাত ঘটলে হৃদরোগের ঝুঁকি বেড়ে যায়। তবে নিয়মিত ব্যায়াম আপনাকে এক্ষেত্রে সাহায্য করতে পারে কারণ নিয়মিত ব্যায়ামের মাধ্যমে; আপনি আপনার রক্ত ​​সঞ্চালন প্রক্রিয়া বাড়াতে পারেন, যার ফলে আপনার শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বাড়বে। এটি উচ্চ কোলেস্টেরল, করোনারি আর্টারি ডিজিজ এবং হার্ট অ্যাটাকের মতো হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। নিয়মিত ব্যায়াম আপনার রক্তচাপ এবং ট্রাইগ্লিসারাইডের মাত্রা কমাতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x