Google authenticator app কিভাবে কাজ করে

Google authenticator app কিভাবে কাজ করে তার বিস্তারিত নিচে আলোচনা করা হলো । প্রযুক্তির উৎকর্ষতায় মানুষের জন্য দিন দিন নতুন জিনিস আবিষ্কার হচ্ছে। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে অনলাইন বা ভার্চুয়াল প্লাটফর্ম। বর্তমানে ব্যাংক, বিমা,চিকিৎসা, শিক্ষা ও যোগাযোগ সকল কিছুই ইন্টারনেটের মাধ্যমে সম্ভব। এখন ঘড়ে বসেই এসকল কাজ করা সম্ভব। কিন্তু প্রযুক্তির অবদানে যেমন এসক কাজ সহজ হয়েছে তেমনি ঝুঁকিও বৃদ্ধি পেয়েছে অনেকাংশে।Google authenticator app কিভাবে কাজ করে

Google authenticator app কিভাবে কাজ করে

এসব অনলাইন প্লাটফর্মের একাউন্ট গুলো যেমন সুবিধা দিচ্ছে তেমনি হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে যে কেউ হাতিয়ে নিতে পারে আপনার ব্যাংক একাউন্টের তথ্য ও অর্থ তেমনি অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বা নথি। আর এ কারনেই প্রযুক্তিবিদরা সুরক্ষা ব্যবস্থাও জোরদার করার কৌশল আবিষ্কার করছে। এবং এইরকম-ই একটি সুরক্ষা ব্যাবস্থা হচ্ছে গুগল অথেনটিকেশন অ্যাপ (Google authentication app). এটি মূলত একটি টু স্টেপ ভেরিফিকেশন সিস্টেম ( Two Step Verification system) এর প্রধান কাজ হলো যখন আপনি অনলাইনে কোন গুরুত্বপূর্ন একাউন্ট লগিন করবেন তখন এটির দ্বারা আপনার প্রাইমারি পাসওয়ার্ড দ্বারা লগিন করার পরেও একটি দ্বিতীয় সুরক্ষা স্তর তৈরি করবে। যেখানে আপনাকে এই Google Authentication এপ্স এ পাওয়া ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড প্রবেশ করাতে হবে। এবং প্রতিবার লগিনের ক্ষেত্রে-ই একটি নতুন পাসওয়ার্ড তারা প্রদান করবে।

তাহলে গুগল অথেনটিকেশন সম্পর্কে একটি সাধারণ ধারনা আপনাদের মাঝে তৈরি হয়েছে। আসুন একটু বিস্তারিত আলোচনা করা যাক, বর্তমান ফেসবুক বা বিভিন্ন অনলাইন একাউন্ট লগিনের ক্ষেত্রে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন সিস্টেম চালু রয়েছে। কারন হলো বর্তমানে আপনি যত কঠিক পাসওয়ার্ড-ই দিন না কেন হ্যাকাররা তা যে কোন ভাবেই ভেঙে ফেলতে পারে। এবং বর্তমান পাসওয়ার্ড হ্যাক করার জন্য বিভিন্ন হ্যাকিং টুল রয়েছে যা খুবই কার্যকর।

এমত অবস্থায় হ্যাকিংয়ের হাত থেকে বাচা খুবই কষ্টকর বা বলতে গেলে আপনি যদি তাদের টার্গেট হয়ে থাকেন তাহলে আপনার নিস্তার পাওয়া দুষ্কর হয়ে যাবে। এই সমস্যা সমাধানের জন্যই মূলত পাসওয়ার্ডের থেকেও অধিকতর সুরক্ষিত সুরক্ষা ব্যবস্থা চালু করা হয়। এবং এটিকে বলা হয় অথেনটিকেশন এপ্স। বিভিন্ন কোম্পানির বিভিন্ন এপ্স থাকলেও গুগল অথেনটিকেশন এপসটি সর্বাধিক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এবং একই সাথে এটি নিরাপদ। Read more: Technology

আপনি যদি আপনার যে কোন একাউন্টে Google Authentication apps যুক্ত করতে চান তাহলে প্রথমে দরকার হবে আপনার একাউন্ট টি গুগল অথেনটিকেশন এপস এর সাথে কানেক্ট করতে হবে। তবে কানেক্টেড করতে হলে অবশ্যই আপনি যে একাউন্টটির সাথে কানেক্ট করতে চান সেটি গুগল অথেনটিকেশন সাপোর্টেড হতে হবে। এবং এখান থেকে একটি প্রাইভেট কি (Private key) প্রদান করা হবে। এটির মাধ্যমে কানেক্ট করে নিন। এবং প্রাইভেট কি টি সংরক্ষণ করে রাখুন সুরক্ষিত স্থানে। এবার প্রতিবার লগিনের ক্ষেত্রে আপনাকে Google authentication থেকে নতুন একটি কোড দিবে। যেটি লগিন করতে হবে। তবে মনে রাখতে হবে প্রাইভেট কি এখানে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কারন কি (key) হারিয়ে গেলে আপনি যদি একবার অথেনটিকেশন এপ্সটি ডিলেট হয়ে যায় তাহলে লগিন কোড আনতে পারবেন না।

জ্ঞানের কথা

জ্ঞানের কথা মানে হলো গুণীজনদের কিছু শিক্ষনীয় উক্তি এবং স্ট্যাটাস এখানে দেয়া হলো । আশাকরি এই বিখ্যাত ব্যাক্তিদের উক্তি গুলো অনেক ভালো লাগবে । এখানে যে কথা গুলো দেয়া হয়েছে, এগুলো সবার অন্তত জীবনে একবার হলেও পড়া ও জানা দরকার । কারণ এখানে অনেক শিক্ষণীয় কথা আছে যেখান থেকে আমরা অনেক শিক্ষা নিতে পারি । আমাদের বাস্তব জীবনে কাজে লাগাতে পারি । তো চলুন দেখা যাক, সেই মূল্যবান কথা বা উক্তি গুলো ।

জ্ঞানের কথা / স্ট্যাটাস

“আমরা জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহন করি না বলে আমাদের শিক্ষা পরিপূর্ণ হয় না।”

“যে যত বেশী ভ্রমণ করবে তার জ্ঞান তত বেশি বৃদ্ধি পাবে।”

“জীবন আর সময় হলো পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ শিক্ষক |
জীবন শেখায় সময়কে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে আর সময় শেখায় জীবনের মুল্য দিতে।”

“অতি দ্রুত বুঝতে চেষ্টা করো না,
কারণ তাতে অনেক ভুল থেকে যায়।”জ্ঞানের কথা

“যে অন্যদের জানে সে শিক্ষিত,
কিন্তু জ্ঞানী হলো সেই ব্যক্তি যে নিজেকে জানে |
জ্ঞান ছাড়া শিক্ষা কোনো কাজেই আসেনা।”

“তোমার যা নেই তার পেছনে ছুটে যা আছে তা নষ্ট করো না ;
মনে রেখ,
আজকে তোমার যা আছে,
গতকাল তুমি সেটার পেছনে ছুটেছিলে ।”

“যতদিন লেখাপড়ার প্রতি আকর্ষণ থাকে,
ততদিন মানুষ জ্ঞানী থাকে,
আর যখনই তার ধারণা জম্মে যে সে জ্ঞানী হয়ে গেছে,
তখনই মূর্খতা তাকে ঘিরে ধরে।”

“লজ্জা ও ভয় হলো জ্ঞানার্জনের প্রতিবন্ধকতা।”

“একজন ঘুমন্ত ব্যক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যক্তিকে জাগ্রত করতে পারে না।”

“মানুষের সুখী হওয়ার জন্যে সবচেয়ে বেশি দরকার জ্ঞানের
– এবং শিক্ষার মাধ্যমে এর বৃদ্ধি ঘটানো সম্ভব।”

“যে কখনও ভুল করেনা।
সে নতুন কিছু করার চেষ্টা করে না।”

“মূর্খের উপাসনা অপেক্ষা জ্ঞানীর নিদ্রা শ্রেয়।”

“বড়- বড় নামকরা স্কুলে বাচ্চারা বিদ্যার চাইতে অহংকার টা বেশি শিক্ষা করে।”

“জানা সত্ত্বেও মেনে না চলার চেয়ে না জানাই ভালো।”

“ধর্ম ও নৈতিকতার শিক্ষা সন্তানের জন্য সবচেয়ে বড় সম্পদ।”

“জ্ঞান অর্জনের মাধ্যমে উপার্জিত হয় যেমন ধৈর্য ধৈর্যধারণের মাধ্যমে অর্জিত হয়।”

“যে ব্যক্তি কল্যাণের খোঁজে ব্যতিব্যস্ত হয় সে কল্যাণ লাভ করে।
যে অকল্যাণ থেকে বাঁচার চেষ্টা করে সে অকল্যাণ থেকে রক্ষা পায়।”

“দেখবার জন্য আমাদের চোখের যেমন আলোর প্রয়োজন,
ঠিক তেমনী কোনো প্রত্যয় অর্জন করবার জন্য আমাদের ভাবনার প্রয়োজন।”

“অর্থ ব্যয় করলে নিঃশেষ হয়ে যায় কিন্তু জ্ঞান বিতরণ করলে আরো বৃদ্ধি পায়।”

“কোনো মানুষ জ্ঞানী হয়ে জন্ম নেয় না।
তাকে জ্ঞান অর্জন করতে হয়।”

“শিক্ষার শেকড়ের স্বাদ তেঁতো হলেও এর ফল মিষ্টি”

“আমরা যতই অধ্যয়ন করি ততই আমাদের অজ্ঞানতাকে আবিষ্কার করি।”

“অজ্ঞতার মধ্যে জ্ঞানের বিস্তার যেন অন্ধকারের মধ্যে আলোর প্রবেশ ।”

“জ্ঞান হল সকল প্রকার সম্পদের জননী।”

রমজানের শুভেচ্ছা

সবাইকে পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আমাদের আজকের পোস্ট । বছর ঘুরে আবার আমাদের মাঝে চলে এসেছে মহান রাব্বুল আলামিনের পক্ষ থেকে রহমত, মাগফেরাত ও নাজাতের মাস । এই মাসে আল্লাহ আমাদের সবাইকে আত্মশুদ্ধির এক অপার সুযোগ করে দেন । আরো দেখুনঃ ঈদের শুভেচ্ছা । পরম করুণাময় আমাদেরকে এই মাসে সিয়াম সাধনা ও আমলের মাধ্যমে ক্ষমা করে দেন । আমরা সবাই মিলে একসাথে দিয়ে রোজা রাখি এবং রাতে তারাবীহ নামাজ পড়ার মাধ্যমে এই পবিত্র একমাস পালন করে থাকি । এই মাস আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের মাস, কেননা আমরা এই মাসে আমাদের গুনাহ মাফের সুযোগ পাই । তাই আমরা সবাই এই মাসের আগমন হিসেবে একে অপরকে শুভেচ্ছা বিনিময় করতে চাই । তাই এখানে কিছু রমজানের শুভেচ্ছা sms ছবিস্ট্যাটাস পোস্ট করেছি । এগুলো চাইলে আমরা আমাদের ফেসবুক সহ যেকোন সোসাল মিডিয়ায় ইউজ করতে পারি ।

রমজানের শুভেচ্ছা

“রমজানের এই চেতনা আমাদের সবার হৃদয়ে থাকুক এবং আমাদের আত্মাকে ভিতর থেকে আলোকিত করুক । সবাইকে জানাই পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা ।”

“রমজান কেবল রোজা রাখার জন্যই নয়, ক্ষুধার্তদের খাওয়ানো, অন্যকে সাহায্য করা, জিহ্বাকে নিয়ন্ত্রন করা, অন্যকে নিয়ে সমালোচনা না করা । এটাই রমজানের চেতনা। শুভ রমজান ।”

“রমজান মাস শুরু হলে জান্নাতের দরজা খুলে দেওয়া হয়, জাহান্নামের দরজা বন্ধ হয়ে যায় এবং শয়তানদের বেঁধে ফেলা হয়। রমজান মুবারক ।”রমজানের শুভেচ্ছা

“আসুন সবাই মিলে পবিত্র মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষা করি ও আল্লাহর কাছে নিজেদেরকে সমর্পন করি । সবাইকে জানাই পবিত্র রমজান মাসের শুভেচ্ছা ।”

“পবিত্র রমজান হলো আমাদের পেট কে খালি করে আত্মাকে খাওয়ানর সব চেয়ে ভালো সময় । রমজানুল মোবারাক ।”

“মুসলমান হতে হবে সব সময়ের জন্য, শুধু রমাজন মাসের জন্য নয় । শুভ রমজান ।”

“রমজান মাস হলো আমাদের আত্মাকে পরিশুদ্ধ করার সব চেয়ে উপযুক্ত সময় । রমজানুল মোবারাক ।”

“আমরা যখন আল্লাহর সাথে সম্পর্ক পুনরুদ্ধার করি তখন তিনি আমাদের সাথে সবকিছুর সম্পর্ক পুনরুদ্ধার করেন । শুভ রমজান ।”

“রমজান হলো ইমান কে তাজা করার মহা সুযোগ । শুভ রমজান ।”

“কম ঘুমান । বেশী পার্থনা করুন । হ্যাপি রমাদান ।”

“রমজান হল ধৈর্যের মাস, আর ধৈর্যের বিনিময় হলো জান্নাত । শু্ভ রমজান ।”

“হে আল্লাহ, আমাদের এই রমজান মাসে আমদের সকলের রোজা কবুল করুন । শুভ রমজান ।”

“আলহামদুলিল্লাহ্‌, আবারো রমজান এলো, আল্লাহর ক্ষমা ও নিয়ামত কামনা করার সময় । রমজানুল মোবারাক ।”

“এই রমজানে মহান “আল্লাহ” আপনার জীবনে সুখ, শান্তি সহ আপনার ইচ্ছা এবং স্বপ্ন পূরণ করুন । শুভ রমাজান ।”

আবেগি মন স্ট্যাটাস

আবেগি মন স্ট্যাটাস দিয়ে এই পোস্ট টি করা হয়েছে । আমাদের এই সাইটে হাজার হাজার বাংলা স্ট্যাটাস ও এসএমএস পাবেন । তবে এখানে কিছু কষ্টের স্ট্যাটাস বা আবেগি মন স্ট্যাটাস পাবেন । অনেকেই এই ধরনের স্ট্যাটাস অনেক লাইক করে । তাই আমরা এখানে কিছু সুন্দর সুন্দর স্ট্যাটাস দিয়েছি । আশাকরি আপনাদের কাছে এগুলো অনেক ভালো লাগবে । তো চলুন দেখা যাক সেই সেরা স্ট্যাটাস গুলোঃ

আবেগি মন স্ট্যাটাস

” আপনার সেই আবেগগুলি আপনাকে কষ্ট দেয় যেগুলি একান্তই আপনার মনে হয় ।”

” প্রেম একটি শক্তিশালী আবেগ । প্রেম অন্য সব কিছুকে গুরুত্বহীন করে দেয়, কারণ অন্যসব আবেগ এত বেশী শক্তিশালী নয় ।”

” আপনি যখন কষ্ট পাবেন, তখন সেই কস্টকে প্রেরণায় রূপান্তরিত করার চেষ্টা করুন, হাল ছাড়ার কারণ হিসাবে নয়।”আবেগি মন স্ট্যাটাস

” আমার ইচ্ছে হয় আমি তোমাকে ক্ষমা করে দেই, কিন্তু আমার আবেগ তা করতে দেয় না, কারণ তুমি সত্যিই অনেক বেশী কষ্ট দিয়েছো আমায় ।”

” তুমি হয়তো মরতে চাও, কিন্তু বাস্তব টা হলো তুমি নিজেকে সেভ করতে চাও ।”

” মরে যাওয়া কোন সমস্যার সমাধান নয়, বরং বেঁচে থেকে সমস্যা সমাধানের লড়াই করে যাওয়াই হলো জীবন ।”

” যার আবেগ নেই তার মধ্যে ভালোবাসাও নেই, আবেগ থেকেই মুলত ভালোবাসার উৎপত্তি ।”

” কারো অবহেলা মানেই জীবন শেষ নয়, একজনের কাছে তুমি মূল্যহীন হতে পারো, সবার কাছে নয় ।”

” জীবনে সফলতা পেতে হলে, আবেগ গুলোকে নিয়ন্ত্রণে রাখা জরুরী ।”

” আবেগ মানেই খারাফ নয়, তবে তা অতিরিক্ত হলে খারাফ ।”

” জীবনের চলার পথে অনেক কিছুই এড়িয়ে চলতে হয়, ঠিক তেমনি আবেগ কেও এড়িয়ে চলা দরকার ।”

” যখন মন ভালো থাকে তখন গান আমরা গান শুনি, আর যখন মন খারাফ থাকে তখন আমরা গানের কথা গুলো শুনি ।”

” তুমি যদি কোন মেয়েকে হাসাতে পারো, তাহলে সে তোমাকে পছন্দ করবে, আর যদি কাঁদাতে পারো তাহলে সে তোমাকে ভালোবাসবে ।”

” হাসি সব সময় সুখের অনুভিত বোঝায় না, কষ্ট থেকেও অনেক সময় হাসি আসে ।”

” বোকা মানুষ গুলো কাউকে ঠকাতে পারে না, তারা শুধু অভিমান করে যায় ।”

” কষ্ট পাওয়া জীবনের জন্য খুবই জরুরী একটা বিষয়, এটা জীবন সম্পর্কে জানতে সাহায্য করে। “

বিদায় স্ট্যাটাস

বিদায় স্ট্যাটাস নিয়ে আমাদের আজকের লেখা । আশাকরি খুব ভালো লাগবে, অনেক কষ্ট করে এই স্ট্যাটাস গুলো লিখেছি । কিছু স্ট্যাটাস বিখ্যাত ব্যাক্তিদের উক্তি থেকে নেয়া আর বেশীর ভাগ স্ট্যাটাস নিজস্ব ক্রিয়েটিভিটি থেকে লিখা । যদি ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন । খারাফ লাগলেও জানাবেন । আপনাদের মতামতের উপর ভিত্তি করে আমরা আরো স্পেশাল কিছু নিয়ে লিখবো ।  তাহলে দেখে নেয়া যাক আমাদের সেই দুর্দান্ত স্ট্যাটাস গুলোঃ

বিদায় স্ট্যাটাস

“বিদায় কেবলমাত্র তাদের জন্য যারা তাদের চোখের দেখা ভালোবাসেন।
কারণ যারা হৃদয় ও প্রাণ দিয়ে ভালোবাসেন তাদের জন্য বিদায়ের মতো
কোন জিনিস নেই ।”

“চিরন্তন সত্য হলোঃ কোন কিছু শুরু করতে হলে কোন কিছু কে বিদায় দিতেই হয় ।”

বিদায় স্ট্যাটাস

“জীবনের দুটি কঠিন সময় হলোঃ প্রথমবারের জন্য হ্যালো এবং শেষবারের জন্য বিদায় ।”

“কেঁদো না, কারণ এটা শেষ হয়ে গেছে, হাসো কারণ এতা ঘটে গেছে ।”

“আপনি যদি বিদায় জানাতে যথেষ্ট সাহসী হন তবে জীবন আপনাকে নতুন কিছু দিয়ে পুরস্কৃত করবে “।

“বিদায় যদিও কষ্টের, তারপরও সবকিছুকেই একদিন বিদায় দিতে হয় ।”

“যার শুরু আছে তার শেষও আছে, তাই যদি কোন কিছু পেয়ে থাকো
তাহলে তাকে বিদায় বলার জন্য প্রস্তুত থাকা দরকার ।”

“বিদায় বলতে যদিও কষ্ট হয়,
তবুও বিদায় বলে দিতেই হয়।”

“বিদায় কখনো সুখের হয় না, কিন্তু বিদায় জানাতেই হবে, এটাই বাস্তবতা ।”

“যদি কখনো বিদায় বেলা এসে যায়, তাহলে তা যেন হয় অতি সুখের বিদায় ।
কারণ কষ্টের বিদায় কখনো ভালো হয় না ।”

“মানুষের অনুভূতিগুলি সর্বদা শুদ্ধ ও আলোকিত থাকে দুটি সময়- মিলনের সময় এবং বিদায়ের সময় ।”

“শুরুর শিল্পটি সুন্দর তবে শেষের শিল্পটি আরও দুর্দান্ত ।”

“সম্পর্কের শুরু হয় স্বপ্ন দিয়ে, আর সম্পর্কের শেষ হয় দুঃস্বপ্ন দিয়ে ।”

“মানুষের জীবন দুটি সময় খুবই একা কাটাতে হয়, তা হলো শুরুর দিকে আর শেষের দিকে ।”

“একজন ভালো মানুষের বিদায় হয় দুঃখের, আর একজন খারাফ মানুষের বিদায় হয় সুখের ।”

“মিলনে যেমন আনন্দ রয়েছে, ঠিক তেমনি বিদায়ে রয়েছে যন্ত্রনা ।”

“বিদায় মানেই কষ্ট নয়, কিছু কিছু সময় বিদায় মানে ভালো কিছু আসার সুযোগ ।”

Samsung Galaxy A50 Price In Bangladesh

Samsung Galaxy A50 Price In Bangladesh . Samsung always tries to make some innovations in its A-series models. Continuing that trend, the Samsung Galaxy A50 model will come up with surprises for the customers. It offers its customers a flagship-level design, a beautiful AMOLED display and a powerful battery. If a customer is looking for a quality device in the affordable price tag, this model may be the best choice. Samsung a20 price in bangladeshSamsung Galaxy A50 Price In Bangladesh
Surely you’re curious about this model right now, right ? No problem, we can help you find out. In this article, we will try to highlight the details about Samsung Galaxy A50. So let’s get started.

Samsung Galaxy A50 Price In Bangladesh

Price BDT 22,990
Release Date February, 2019
Body Color Black, White and Blue
Body Dimension 158.5 x 74.5 x 7.7 mm (6.24 x 2.93 x 0.30 in)
Body Weight 166g
Build Front glass, plastic body
Display Type Super AMOLED capacitive touchscreen, 16M colors
Display Size 6.4 inches, 100.5 cm2 (~85.1% screen-to-body ratio)
Display Resolution 1080 x 2340 pixels, 19.5:9 ratio (~403 ppi density)
Operating System Android Pie
User Interface (UI)
CPU Octa-core (4×2.3 GHz Cortex-A73 & 4×1.7 GHz Cortex-A53)
GPU Mali-G72 MP3

Design and Display:

The A50 shows the flagship every bit. It’s a slim, smooth and sporty edge-to-edge display that is unusual to find on phones in this price range. It weighs 6.24 by 2.94 by 0.30 inches (HWD) and weighs 5.86 ounces. Flip over the A50, and you’ll get a glossy plastic in almost cute black. You will also find a vertically aligned triple camera stack is at the top left and has a monochromatic Samsung logo in the middle. While the design is undoubtedly impressive, it did pick up many nicks and scratches during our review. The 4.4-inch AMOLED display is, without a doubt, the best feature of the A50. The resolution for 403 pixels per inch comes in at 2,040 by 1,080, and everything looks amazingly crisp with ink-black and bright colors.

Hardware and Software:

This awesome device is powered by a Samsung Exynos 9610 processor and comes with 4GB of RAM. It also comes with a 64GB of storage and the notable thing is 48GB is available in the device. You will also get the A50 supports external storage up to 512GB with a microSD card.
The Galaxy A50 comes with Android 9.0 Pie and Samsung’s One UI. Over the past few years, Samsung’s custom UI has been further refined, and the stock doesn’t move too far away from Android. The most notable change is a custom navigation bar, a suite of Samsung’s apps that are very similar to Google’s.

Performance:

The Exynos 9610 confirms that daytime usability is at the top of the Galaxy A50. Whether it’s navigation about the interface, animation, gestures or any application on your phone, it maintains a steady clip. Samsung din an awesome job of optimizing the software for the hardware and using the phone high. Out of the box, the interface animations are somewhat demanding but easy to turn off.

Camera:

Samsung Galaxy A50 comes with three sensors on the back. The primary wide-angle sensor comes in at 25 MP and has an f / 1.7 aperture. It is complemented by a secondary 8 MP ultraviolet lens and 5 MP depth sensor with f / 2.2 aperture.

Final Thoughts:

Undoubtedly from our discussion, you have got a complete idea about Samsung Galaxy A50. This model may be the right choice for customers looking for a suitable quality device at a reasonable price. If you want to know more about this model, you can comment us in the comment box or contact us directly. We will try to answer you. Thank you all.

স্মার্ট ফেসবুক স্ট্যাটাস

কিছু স্মার্ট ফেসবুক স্ট্যাটাস নিয়ে হাজির হলাম । আশাকরি এই স্মার্ট বাংলা স্ট্যাটাস গুলো পড়ে যে কেউ অনেক খুশী হবে । আর এগুলো আপনার ফেসবুকে শেয়ার করে হয়ে যান স্মার্ট পারসন । বন্ধুদের মাঝে অনেক স্মার্ট একজন হিসেবে আপনি হবেন পরিচিত । যা হোক দেখা যাক সেই দারুণ সব স্ট্যাটাস গুলোঃ

স্মার্ট ফেসবুক স্ট্যাটাস

যেদিকে তাকাই, যেখানে চোখ যায়, সেখানে দেখি তোমায় ,
লুকোচুরি মন লুকোচুরি সুখ লুকিয়ে রয় ভাবনায় ।

আমি আকাশ হতে জানি, তুমি দেখ ডানা মেলে,
আমি নদী হতে পারি, যদি ইচ্ছে ভাসাও জলে

যেদিন প্রান খুলে হাসতে গিয়েও চিন্তা করবেন হাসাটা ঠিক হবে কিনা,
তখনই বুঝবেন আপনি বড় হয়ে গেছেন ।স্মার্ট ফেসবুক স্ট্যাটাস

তোমার জন্য আমি নিজস্ব অর্থায়নে মনের মধ্যে পদ্মা সেতু বানাবো ।

প্রত্যেক প্রেমিকার কাছে তার প্রেমিকের বান্ধবীরা সতিনের ন্যায় ।

যোগ্য মানুষকে যোগ্যতা দিয়ে হারাতে হয়, হিংসা করে নয় ।

ওহে বালিকা, তোমার মাঝে আমি একবার ডুব দিতে চাই,
কথা দিতেছি আমি তোমার মাথা ঘোরা আর বমির কারন হবো না ।

তুমি কি আমার হাসি মুখের আবার কারন হবে ?
তুমি কি আমার শত ভুলের আবার বারন হবে ?

সূর্যটা গেছে ডুবে, দিগন্তের আঁচলে ।
মুখ লুকাতে চেয়েছি বলে – তোমার বুকের তিলে ।

অনেক সবুজের প্রান্তে তুমি থাকো একাকী,
আমি ধূসর, ধূসর হয়ে জেগে থাকি ।
অনেক মানুষের ভিড়েও তুমি থাকো একাকী,
আমি অনেক আশা নিয়ে বসে থাকি .
যতো দূরেই যাই না কেন ।

যতো দূরেই যাই না কেন , তুমিই শেষ সীমানা ।
ভবঘুরে এই আমার – তুমিই তো ঠিকানা ।

তার কালো চোখে কাজল ছিল না, না পাওয়া ছিল—গাঢ়
সেই কাঁপা ঠোঁটে নিষেধ ছিল না, আহ্বান ছিল —আরও

প্রতিটা পুরুষই জীবনের বড় একটা সময় ব্যয় করে দেয় নারীর অভিমান আর রাগ ভাঙ্গাতে।
এটাকে পুরুষজাতি সৃষ্টির অন্যতম একটা কারণও বলা যেতে পারে।

আমার গল্পগুলো যাচ্ছে চলে- ব্যথার সুনীল অন্তরালে, সুপ্তমেঘের জলে ।
রাত বিছানায় জোৎস্না ঘুমায়- সিক্ত আঁধার ভুল ঠিকানায়, দিচ্ছে চুমু ঢেলে ।

মেঘবালিকা তুমি পূবের জানালায় সুভাষিত গন্ধরাজ হও
আমি অন্তরীক্ষে হাওয়ার নৌকোয় মন ভাসাই,
ছোঁয়া ছোঁয়ির ইচ্ছেটা আজ পূর্ণতা পাক ।

বিকেলটা ভালো লাগে যখন, একটু বেশি অকারণ।
তখনই কি বুঝে নেবো, খুঁজছে তোমায় এ মন ।

কতদিন দেখিনা আমাকে অবাধ্য করে দেয়া ঐ নীল চোখের যাদু,
এক মুহুর্তে সব কষ্ট ভুলিয়ে দেয়া সে টোল পড়া গালের হাসি ।

প্রিয় মানুষকে নিয়ে কিছু কথা

প্রিয় মানুষকে নিয়ে কিছু কথা ও কিছু উক্তি এসএমএস নিয়ে আমাদের এই লিখা। প্রিয় মানুষকে নিয়ে লিখার মত অনেক কিছুই আছে । মন থেকে অনেক কথা এসে যায়, যা আমরা আমাদের মনে জমা রেখে দেই । তবে আমরা অনেকেই এই ধরনের রোম্যান্টিক কথা গুলো সুন্দর করে বলতে পারি না । তাই এখানে কিছু সুন্দর সুন্দর কথা ও এসএমএস দেয়া হলো ।

প্রিয় মানুষকে নিয়ে কিছু কথা

তোমাকে সারাক্ষণ যতো হাজার বার
ভালোবাসি বলি ততোবার
চোখের পলকও ফেলিনা,
তোমাকে সারাক্ষণ যতো অজস্রবার
হাত ধরতে বলি ততোবার
বুকের কম্পনও গুনি না…

তোমাকে সারাদিন যতো
সহস্রবার দেখতে চাই
ততোবার নিশ্বাসও ফেলিনা
তোমাকে সারাদিন যতো অসংখ্য বার
পাশে পেতে চাই ততোবার
বাঁচতেও চাইনা…প্রিয় মানুষকে নিয়ে কিছু কথা

তুমি খুব বেশি দূরে নও
এ আমার মন জানে
শুধু চোখ জানেনা,
তুমি খুব বেশি দূরে নও
এ আমার স্পর্শ জানে
শুধু হাত জানেনা,

তোমাকে খুঁজতে, খুঁজতে
পার করেছি বহু পথ
ঝরা পাতা মাড়িয়েছি অনেক
শুধু নিঃশ্বাসেরা জানে তুমি
কতোটা কাছে পথ জানেনা,
ঝরা পাতাও না…

আমাকে পারিনা কভু
দূরে থাকার জন্য করতে
সদা প্রতিহত,
এই মন প্রাণ আত্মাটা
শুধু তোমাকে ভাবে
দিন রাত যথাযত ।

আমার সারাটা দিনই দেখি যে
তোমার কাছে থাকে অনাদৃত,
তুমি যেন সদা অধরা তুমিযে
রয়ে যাও সর্বদা চির অনধিকৃত ।

আমার হৃদয়ের ঘরে সর্বদা থেকো
তুমি শুভ্র সুন্দর অনাবিল,
আমার সারাটা দিনই ভরে থাকুক
নিরাপদে তোমারই স্বপ্নীল ।

ভালোবাসার বাতায়নে
তোমারই মুখটি ভাসে,
তখন আমি পাগল হই এক
স্বপ্ন অভিলাষে ।

আমার সারাটা দিনই
বিফলে যায় তোমার
পিছে, পিছে ঘুরে,
আমি যতটানা আসি
কাছে তুমিযে ততটাই
থেকে যাও দূরে ।

তোমাকে চাইলেও কি
বা নাচাইলেও কি শূন্যই
হয় ফলা ফল,
আমার এই আমিকে
তোমার ভাবনাতেই রাখে
ব্যস্ত ও চঞ্চল ।

কতো গুলো কথা জমে যায় বরফের মতো
কতো গুলো শব্দ ছড়িয়ে যায় আকাশে
দিন যায় এমনি করে রাত গুলো
আমিও চলে যাই তোমার মতো করে।

কিছু, কিছু রাগ থাকে অভিমান ভরা
শক্ত হয় যেন স্বাভাবিক বৃষ্টি -খরা।
কিছু, কিছু দূরত্ব বাড়তে থাকে অবিরাম
কিছু, কিছু ঘনিষ্ঠতা সমুদ্রে হারায়
কিছুু হাত পড়ে থাকে অভিশাপ দেবার।

বসন্ত গুলো চলে যায়
উত্তপ্ত বালুকায়
বাতাস ঝরা পাতার
শব্দ শোনায় নিরালা
চলে যায় স্বপ্ব গুলো
আশা এবং প্রত্যাশা
পূরণ-অপূরণ, চিহৃ বিচিহৃ
যতো বলা নাবলা ভাবনা,
চলে যায় ভেসে যায়
সমস্ত ব্যাথা-বেদনা।

প্রোফাইল পিক ক্যাপশন

প্রোফাইল পিক ক্যাপশন এর জন্য কিছু বাংলা স্ট্যাটাস দেয়া হলো । অনেক সুন্দর সুন্দর এই ক্যাপশন গুলো দিতে পারেন ফেসবুক প্রোফাইলে । ফেসবুক স্ট্যাটাস

প্রোফাইল পিক ক্যাপশন

দূর থেকে মানুষ চেনা সহজ, কিন্ত ভেতর থেকে চেনা খুব কঠিন

এ জীবনে অনেকেরই ভালো বন্ধু হয়েছি কিন্তু কারো প্রিয় বন্ধু হতে পারিনি..

মাথাব্যথা করলে একটা প্যারাসিটামল খেয়ে নিতে বলাটা হচ্ছে কেয়ারিং । আর মাথায় হাত বুলিয়ে দেয়াটা হচ্ছে ভালোবাসা।

কিছু কিছু মানুষ আছে যারা অন্যকে টিস্যু পেপার মনে করে,নিজের প্রয়োজনে ব্যবহার করে, প্র‍য়োজন শেষে ছুঁড়ে ফেলে দেয়,,

আপনার রাগের জন্য হয়তো কেউ আপনাকে শাস্তি দেবে না , কিন্তু আপনার রাগই আপনাকে শাস্তি দেবে।

স্বাভাবিক ব্যাপারগুলোকে স্বাভাবিকভাবে মেনে না নিতে পারা মানুষগুলোই অস্বাভাবিক হয়ে থাকে |

প্রকৃত স্মার্ট তারা , যারা সব পরিস্থিতিতে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারে

স্বাভাবিক ব্যাপারগুলোকে স্বাভাবিকভাবে মেনে না নিতে পারা মানুষগুলোই অস্বাভাবিক হয়ে থাকে |

পড়াশোনা হচ্ছে আমার বাম হাতের খেলা কিন্তু সমস্যা হলো আমি ডানহাতি খেলোয়াড

মানুষের জীবনের সুখ আর Android ফোনের চার্জ কখনই দীঘস্থায়ী নয় !

একটা সময় ছিল আমার অভিমান গুলোর কদর ছিল,অভিমান ভাঙানোর হাজার চেষ্টা করত,না খাইলে জোর করে লোকমা তুলে খাইয়ে দিত,আজ আর কেউ সারাদিন উপোষ থাকলেও একটু খাবার মুখে দেওয়ার মত নেই,হারিয়ে গেছে রঙিন দিনগুলি ।

জানিনা মানুষ কিভাবে গার্লফ্রেন্ডকে মনের কথা বুঝায়__ আমি তো নাপিত দর্জিকেও আমার মনের কথা বুঝাতে পারিনা
৫ মিনিট সময় চেয়ে ৫০ মিনিট ধরে সাজু গুজু করা মেয়েদের জন্মগত অধিকার !

প্রোফাইল পিক ক্যাপশন

সম্পর্ক গুলা অনেক দিন বেচেঁ থাকে যদি ইগোটাকে সাইডে রাখা যায়

সেই ছেলে গুলাই ছ্যাচড়া হয় যেগুলা মেসেজ সিন এর পর রিপলে না পেয়ে আবারো মেসেজ দেয়

শুনেছি ভালো মানুষের কপালে ভাত জোটে না ! . তাহলে কি আমাকে সারাজীবন বিরিয়ানি খেয়ে থাকতে হবে..?

সেই ছেলে গুলাই ছ্যাচড়া হয় যেগুলা মেসেজ সিন এর পর রিপলে না পেয়ে আবারো মেসেজ দেয়

সম্পর্ক গুলা অনেক দিন বেচেঁ থাকে যদি ইগোটাকে সাইডে রাখা যায়

জীবন এত ক্ষণস্থায়ী বলেই মাঝে মাঝে সবকিছু এমন সুন্দর মনে হয়।

বেশি দিন ভালবাসতে পারে না বলেই ভালবাসার জন্য মানুষের এত হাহাকার।

সাদা রঙের ড্রেস পছন্দ…. পরলে সবাই বলে ভালো লাগছে অদ্ভুত!!! যখন মরে যাবো তখন তো সাদা রঙের কাপড়ই পরে থাকবো তখন সবাই কি বলবে??

ঘুম ভাঙ্গেছে তবু বিছানা আমাকে ছাড়ে না কেন আরও ঘন্টাখানেক শুয়ে থাকা মানে কি অলসতা নাকি সত্যি বিছানা আমাকে ভালোবাসে….

তুমি যদি কাউকে হাসাতে পার, সে তোমাকে বিশ্বাস করবে। সে তোমাকে পছন্দও করতে শুরু করবে।

হৃদয়ের গভীরে যার বসবাস, তাকে সবকিছু বলতে হয় না। অল্প বললেই সে বুঝে নেয়।

মানবহৃদয় আয়নার মত। সে আয়নায় ভালবাসার আলো পড়লে তা ফিরে আসবেই।

হৃদয়ের গভীরে যার বসবাস, তাকে সবকিছু বলতে হয় না। অল্প বললেই সে বুঝে নেয়।

কাগজে-কলমে কোন সৌন্দর্যের যথার্থতা ব্যাখ্যা করা সম্ভব নয়। সৌন্দর্যের মুখোমুখি গিয়ে দাঁড়াতে হয়।

সুখী হওয়ার একটা অদ্ভুত ক্ষমতা আছে মানুষের। এ জগতে সবচেয়ে সুখী হচ্ছে সে, যে কিছুই জানে না। জগতের প্যাঁচ বেশি বুঝলেই জীবন জটিল হয়ে যায়।

সব শখ মিটে গেলে বেঁচে থাকার প্রেরণা নষ্ট হয়ে যায়। যেসব মানুষের শখ মিটে গেছে তারা অসুখী।

যার কাছে ঘুম আনন্দময় সে-ই পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী মানুষ। অতি সামান্য জিনিসও মানুষকে অভিভূত করে ফেলতে পারে।

খুব বেশি সুন্দর কোন কিছু দীর্ঘস্থায়ী হয় না। খুব ভাল মানুষরাও বেশি দিন বাঁচে না। স্বল্পায়ু নিয়ে তারা পৃথিবীতে প্রবেশ করে।

যখন কেউ কারো প্রতি মমতা বোধ করে, তখনই সে লজিক থেকে সরে আসতে শুরু করে। মায়া-মমতা-ভালবাসা এসব যুক্তির বাইরের ব্যাপার।

বেশি নৈকট্য দূরত্বের সৃষ্টি করে। প্রিয়জনদের থেকে তাই দূরে থাকাই ভাল। সম্পর্ক স্থির নয়, পরিবর্তনশীল।

রহস্য সৌন্দর্যের সৃষ্টি করে। কৌতূহলেরও জন্ম দেয়।

কিছু কথা শুধু নিজের ভেতর রাখো। দ্বিতীয় কেউ জানবে না। কোনভাবেই না। দুই জন জানলে বিষয়টা গোপন থাকে। তিনজন জানলে নাও থাকতে পারে। আর চারজন জানা মানে সবাই এক সময় জেনে যাবে।

বলার আগে শুনে নাও, প্রতিক্রিয়া দেখানোর আগে চিন্তা কর, সমালোচনার আগে ধৈর্য্য ধর, প্রার্থনার আগে ক্ষমা চাও, ছেড়ে দেয়ার আগে চেষ্টা কর।

না চাইতেই যা পাওয়া যায়, তা সবসময় মূল্যহীন।

পায়ের আলতা খুব সুন্দর জিনিস। কিন্তু আলতাকে সবসময় গোড়ালীর নিচে পড়ে থাকতে হয়, এর উপরে সে উঠতে পারেনা।

অতিরিক্ত যেকোন কিছু পতন নিয়ে আসে। সবকিছু তাই নির্দিষ্ট সীমায় রাখাই শ্রেয়।

চুপ থাকা খুব সহজ একটা কাজ। পারস্পরিক বহু সমস্যার সমাধান শুধু চুপ থাকলেই হয়ে যায়। কিন্তু মানুষের সবচেয়ে বড় অযোগ্যাতা হচ্ছে সে মুখ বন্ধই রাখতে পারে না, অপ্রয়োজনে অনর্গল বকে যায়।

দুর্নামকারীরা সাধারণত আড়ালপ্রিয়। সামনে ভাল মানুষ সেজে বসে থাকে।

বিচার যখন থাকে না, সমস্যার সমাধানও হয় না। সব সমস্যা বরং পুঞ্জীভূত হয় আরও। আমাদেরও তাই হচ্ছে।

স্বার্থপর স্ট্যাটাস

স্বার্থপর স্ট্যাটাস ও কিছু কথা । এখানে কিছু স্ট্যাটাস বা পোস্ট দেয়া হয়েছে । আশাকরি এই বাংলা স্ট্যাটাস গুলো পড়ে অনেক ভালো লাগবে । ধন্যবাদ । Read more >>> কষ্টের স্ট্যাটাস

স্বার্থপর স্ট্যাটাস

কাউকে ভালোবাসা এবং তার কাছ থেকেও ভালোবাসা আশা করা, এটা ভালোবাসা নয়, এটা স্বার্থপরতা ।

নিজের সম্পর্কে চিন্তা করা স্বার্থপরতা নয়, কিন্তু শুধুই নিজের সম্পর্কে চিন্তা করা হলো স্বার্থপরতা ।

স্বার্থপর মানুষের চেয়ে প্রতারক আর কেউ হতে পারে না ।

মানুষ এখন অনেক স্বার্থপর ।স্বার্থপর স্ট্যাটাস

সুখী হওয়ার জন্য, প্রথমে অবশ্যই সকল সঙ্কীর্ণতা এবং স্বার্থপরতা ছেড়ে দেওয়া উচিত ।

সবচেয়ে কৃপণ ব্যক্তিরা হলেন তারা যারা কেবল নিজের সম্পর্কে যত্নবান হন, কেবল নিজের সমস্যাগুলি বোঝেন এবং কেবল তাদের নিজস্ব দৃষ্টিভঙ্গি দেখেন।

আসুন, যেকোন সফ্টওয়্যারের ‘শর্তাবলী’ উপেক্ষা করার মতোই স্বার্থপর লোকদের উপেক্ষা করতে শিখি।

কখনও কখনও আপনাকে নিঃস্বার্থ হতে হলে স্বার্থপর হতে হবে ।

ভুয়া বন্ধুরা প্লাস্টিকের মতো, ব্যবহার শেষে এদের কে ফেলে দিতে হয় ।

আমি নিজের ব্যাপারে যত্নশীল তাই বলে কি আমি স্বার্থপর ?

স্বার্থপর লোকেরা কেবল তাদের নিজেদেরকেই অর্জন করে ।

মানুষ একা না হলে আপনাকে মূল্যায়ন করবে না, তারা যখন একা থাকে তখন কেবল মূল্যায়ন করবে ।

স্বার্থপর হওয়া ভাল। তবে এতটা আত্মকেন্দ্রিক নয় যে আপনি কখনই অন্য লোকের কথা শোনবেন না।

কিছু কিছু মানুষ স্বার্থপর, ব্যাবহার শেষে তারা আপনাকে ফেলে দিবে ।

আমি ঠিক বুঝতে পারি না যে, লোকেরা কীভাবে এত স্বার্থপর আর অভদ্র হতে পারে এবং তবুও তাদের মনে হয় যে তাদের বন্ধু রয়েছে ।

কখনও কখনও স্বার্থপর হওয়ায় কোনও ক্ষতি হয় না, আমরা সকলেই সর্বোপরি সুখ চাই ।

স্বার্থপর হওয়া কখনও কখনও ভাল, এটি কিছু অযাচিত সমস্যা থেকে আপনাকে বাঁচায় ।

কখনও কখনও স্বার্থপর হওয়া সুখী থাকার জন্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন ।

আমি স্বার্থপর নই, আমি নিজেকে নিয়ে অন্যের চেয়ে বেশি ভাবি ।

আজকের দুনিয়ায় কখনো কখনো স্বার্থপর হওয়া খুব প্রয়োজন ।

স্বার্থপর মানুষ গুলো কখোনই বড় মনের অধিকারী হতে পারে না ।

স্বার্থপর মানুষ গুলো অন্যের ভালো মন্দ দেখে না, সুধু নিজের লাভ খুঁজে বেড়ায় ।