নিয়ন আলো নিয়ে ক্যাপশন

নিয়ন আলো নিয়ে ক্যাপশন ও কিছু কথা নিয়ে আমাদের আজকের পোস্ট । লেখা গুলো অনেক সুন্দর, তাই সবার সাথে শেয়ার করলাম । অনেক লেখার মধ্যে এই লেখা গুলো অনেক ভালো লাগবে আশা করি । তাহলে চলুন দেখে নেয়া যাক ক্যাপশন গুলো ।নিয়ন আলো নিয়ে ক্যাপশন

নিয়ন আলো নিয়ে ক্যাপশন :

১. কে জানে শহরের নিয়ন আলোয় কত কাব্য রচিত হয়েছিল! কত সুখ দুঃখ লেখা হয়েছিল স্মৃতির পাতায়।

২. আঁধারের দুঃখ ভুলায় নিয়ন আলো। মৃদু আলো এটাই প্রমাণ করে যে, হাজারও দুঃখ রাশি ছিন্ন করে একটু সুখের আলো কিছু কম নয়।

৩. রাত যত গভীর হয়, নিয়ন আলোতে মনের ক্ষতগুলো আরো স্পষ্ট হয়ে ওঠে। মৃদু আলোতে যেন, ক্ষতবিক্ষত হৃদয়টা আরো ঝলসে ওঠে।

৪. গুমোট অন্ধকারে যখন দুঃখগুলো ঘরময় পায়চারি করতে থাকে। তখন হালকা নিয়ন আলোয় সবটুকু ছাপিয়ে, একঝলক সুখের অনুভূতি উঁকি দিয়ে যায়।

৫. কত রাত জাগার মানুষের সঙ্গী এই নিয়ন আলো। কত সিগারেটের ধোঁয়া, কত নিঃসঙ্গ নিঃশ্বাস এই নিয়ন আলোতে ধরা পড়েছিল।

৬. কম্পিউটার স্ক্রিনে ভেসে ওঠার নিয়ন আলো কতশত ক্ষন জন্মা স্বপ্নগুলোকে ছুঁয়ে দেয়। আবার পরক্ষণেই তা ভেঙ্গে যায়।

৭. নিয়ন আলোর এক টুকরো ঝলকানিতে এই ক্লান্ত শহর জেগে থাকে। কতবার এই নির্জন শহরের পথে নিয়ন আলোকে সঙ্গী করে হেঁটেছি।

৮. মৃদুমন্দ নিয়ন আলোতে কত শত কাব্য রচনা করেছিলাম তোমার জন্য। কতবার বলতে চেয়েও বলতে পারিনি।

৯. নিয়ন আলোর লুকোচুরিতে সেরা শহরটাকেও বড় অচেনা মনে হয়। মনে হয় যেন কত দূর থেকে এই শহর আমাকে দেখছে আর তাচ্ছিল্য করছে।

১০. ব্যস্ত নগরীর উল্লাস থেমে গিয়ে যখন নিঃসঙ্গতা আর নীরবতা নেমে আসে। তখন নিয়ন আলো তার সমস্ত আয়োজন নিয়ে এই শহরকে জড়িয়ে নেয়।

১১. প্রচন্ড আঁধারেও নিয়ন আলো, তার সামান্য আলো নিয়ে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকে। তাই জীবনের আঁধারেও আমরা নিয়ন আলোর মতোই, ক্ষীণ আশা নিয়ে উজ্জীবিত হতে পারি।

১২. স্বপ্ন ভাঙার এই শহরে হৃদয় ছিল কত,
নিয়ন আলোয় জেগেছিল রাত-
ঢেকে দুঃখ শত।

১৩. অতিরিক্ত মন খারাপ হলে মাঝে মাঝে নিয়ন আলোর সামনে দাঁড়ান। দেখবেন হালকা আলোয় আপনার চোখ এবং হৃদয় কোমলতা অনুভব করবে।

১৪. তাহলে কি এক নিশি প্রহরে নিয়ন আলোতে নিজেকে বিলিয়ে দিতে ইচ্ছে করে? মনে হয় যেন আঁধারে ডুবেই আপনার সব অপ্রাপ্তির অবসান হবে।

১৫. নিয়ন আলো, কত না বলা সুখ-দুঃখের সাক্ষী। কত ব্যর্থতার, নিস্তব্ধতার, নিঃসঙ্গতার নিরব সঙ্গী। তা কেবল এই পাথুরে শহর জানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *