পাপ নিয়ে উক্তি

পাপ নিয়ে ২৩ টি অসাধারণ উক্তি , যা আপনার ধারণাই পাল্টে দেবে । গুনাহ সম্পর্কে উক্তি বা বাণী গুলো হলো মুসলিম মনিষী বা বিখ্যাত ব্যক্তিদের । এই উক্তি গুলো আশাকরি আপনাদের অনেক ভালো লাগবে । তো চলুন দেখে নেই, সেই উক্তি গুলো ।

পাপ নিয়ে উক্তি বা বাণীঃ

১। একজন যুবকের পাপ করা অন্যায়, কিন্তু একজন বৃদ্ধ মানুষের জন্য তা আরো খারাফ ।
— আবু বকর সিদ্দীক (রাঃ)

২। যেসব পাপ কাজ তোমরা গোপনে করে থাকো সেগুলোকে ভয় করো, কেননা সেসব পাপের সাক্ষী বিচারক স্বয়ং নিজেই ।
— আলী ইবনে আবু তালিব (রাঃ)

৩। পাপ কাজ গুলো মানুষের চেহারাকে কুৎসিত করে দেয় ।
— ইমাম ইবনে তাইমিয়া (রহঃ)

আরো আছেঃ>> নামাজ নিয়ে উক্তি

৪। কল্যানপ্রাপ্ত তো সেই ব্যক্তি যার নিজের পাপ সমূহ তাকে অন্যদের পাপের দিকে অঙ্গুলি নির্দেশ থেকে বিরত রাখে ।
— আলী ইবনে আবু তালিব (রাঃ)

৫। ঈমানদারদের জীবন ক্রমাগত বিভিন্ন কঠিন পরীক্ষার মুখােমুখি করানাে হয় তাদের ঈমানকে বিশুদ্ধ এবং তাদের পাপকে মােচন করানাের জন্য। কারণ, ঈমানদারগণ তাদের জীবনের প্রতিটি কাজ করেন কেবলমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য; আর তাই জীবনে সহ্য করা এই দুঃখ-কষ্টগুলাের জন্য তাদের পুরষ্কার দেয়া আল্লাহর জন্য অপরিহার্য হয়ে যায়।
— ইমাম ইবনে তাইমিয়া (রহঃ)

আরো আছেঃ>> বিবেক নিয়ে উক্তি

৬। পাপ হলাে শেকলের মতন যা পাপকারীকে আটকে রাখে যেন সে তাওহীদের বিশাল বাগানে বিচরণ করতে এবং সেখানকার ফল সৎকর্মসমূহকে সংগ্রহ করতে না পারে।
— ইমাম ইবনে তাইমিয়া (রহঃ)

৭। পাপকাজের অনেক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে, তার মধ্যে একটি হলাে তা আপনার কাছ থেকে জ্ঞান। ছিনিয়ে নেবে।
— ইমাম ইবনুল কাইয়্যিম (রাহিমাহুল্লাহ)পাপ নিয়ে উক্তি

৮। আমাদের পুর্ব প্রজন্মের একজন মানুষ বলেছিলেন, খারাপ কাজের একটি শাস্তি হলাে আরাে খারাপ কাজ হওয়া এবং ভালাে কাজের একটি পুরষ্কার হলাে আরাে ভালাে কাজ হওয়া ।
— ইমাম ইবনুল কাইয়্যিম (রাহিমাহুল্লাহ)

৯। প্রতিটি পাপ আরাে অনেক পাসের জন্ম দেয়, একটি পাপ আরেকটি পাপের দিকে নিয়ে যেতে থাকে যতক্ষণ না পর্যন্ত সেই পাপরাশি মানুষটিকে এমনভাবে কাবু করে ফেলে যে কৃত পাপগুলাের জন্য তাওবা করাকে তার কাছে কঠিন বলে মনে হয়।
— ইমাম ইবনুল কাইয়্যিম (রাহিমাহুল্লাহ)

১০। একজন পাপাচারী লােক তার পাপের জন্য অনুতপ্ত হয়না। কারণ তার অন্তর ইতােমধ্যেই মরে গেছে ।
— ইমাম ইবনুল কাইয়্যিম (ব্রাহিমাহুল্লাহ)

১১। যে ভালাে কাজের ফলে অন্তরে অহংকার সৃষ্টি হয় তার চাইতে যে পাপের জন্য কোন ব্যক্তি আল্লাহর কাছে তার আত্মাকে সমর্পিত করে সেটি আল্লাহর কাছে বেশি পছন্দের ।
— ইমাম ইবনুল কাইফ্লিম (রাহিমাহুল্লাহ)

১২। আয়নায় নিজের চেহারা দেখ, যদি সুদর্শন হও তবে পাপের কালিমা লেপন করে ওকে কুৎসিত করাে ! আর যদি কালাে-কুশ্রী হয়ে থাক, তবে ওকে পাপ-পঙ্কিলতা মেখে আরও বীভৎস করে তুলাে না।
— ইমাম মাজ্জালী (রহঃ)

১৩। আমি এমন মানুষদের (সাহাবা) সান্নিধ্য অর্জন করেছিলাম যারা তাদের কোন সৎকাজকে ছেড়ে দেয়া যতটা ভয় করতেন তা তােমরা তােমাদের পাপকাজের পরিণামকে যতটুকু ভয় কর তার চাইতেও বেশি।
— আল হাসান আল-বামী (রাহিমাহুল্লাহ)

১৪। কোন পাপ করার জন্য আপনার কামনা যত বড় হবে, সেই পাপকে এড়িয়ে গেলে আপনার ঈমান তত বড় হবে।
— লাইথ মালিহ আল-উমাইমিন (রহিমাহুল্লাহ)

১৫। যদি আকাঙ্ক্ষা করেন আপনার সম্পদ বৃদ্ধি হােক এবং আপনার পাপগুলাে ক্ষমা হোক, তাহলে আপনার সাদাকাহ (দান) করা উচিত।
— ইথ মালিহ আল-উসাইমিন (রহিমাহুল্লাহ)

১৬। জঘন্য পাপগুলাের একটি হলাে যখন একজন মানুষ তার অপর ভাইকে বলে, “আল্লাহকে ভয় করাে” এবং সে তার জবাবে বলে, “তােমার নিজেকে নিয়ে চিন্তা করাে।
— আব্দুল্লাহ বিন মাসউদ (রাদিয়াল্লাহু আনহু)

১৭। আপনার পাপগুলাে আল্লাহর দয়ার চেয়ে বড় নয়।
— উস্তাদ নুমান আলী খান

১৮। সন্তানদের জন্য বিয়েকে সহজ করে দেয়া আমাদের জন্য ইবাদাত স্বরূপ৷ আর তাদের জন্য বিয়েকে কঠিন করে ফেলা একটি পাপ, যা অন্যান্য আরাে অনেক পাসের জন্ম দেয়।
— ইসমাইল ইবন মুসা মে

১৯। দ্বীনদার স্বামী-স্ত্রী পরস্পরকে তাদের দ্বীনকে মজবুত রাখার জন্য সহায়তা করে, সমর্থন করে এবং উপদেশ প্রদান করে যা তাদেরকে আল্লাহর আদেশ মেনে চলতে এবং পাপকাজ থেকে দূরে থাকতে সাহায্য করে।
— বিলাল ক্রিলিদাস

২০। আপনি যদি কোন পাপ করেন, অবিলম্বে অনুতপ্ত হন।
— আশরাফ আলী থানভী (রহঃ)

২১। মানুষকে তার করা (ভালাে) কাজগুলাের অনুপাতে ভালােবাসাে। যখন তােমাকে কোন ভালাে কাজ করার জন্য আহবান করা হয় তখন বিনয়ী এবং নমনীয় হও এবং যখন কোন পাপকাজ করতে ডাকা হয় তখন কঠোর এবং বেপরােয়া হও।
— ইমাম মুফিয়ান আম-মাওরি (রহঃ)

২২। যখন পাপকাজ করার প্রতি ইচ্ছা জাগবে, তখন নিজেকে বলুন, “জান্নাতে যা দেয়া হবে তা এর চেয়ে অনেক বেশি উত্তম এবং এই কাজটা করে আমি তা পাওয়াকে ঝুঁকির মুখে ফেলে দিচ্ছি।
— उसत मूलाटेमात

২৩। আপনি আমাকে একজন পুঁজিবাদীকে দেখান, আমি আপনাকে একটি রক্তচোষা দেখাব।
— ম্যালকম এক্স


 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *