ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস

এখানে পাবেন ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস ক্যাপশন পোস্ট উক্তি ও মেসেজ । ছেলেদের জীবন যে কত কষ্টের মধ্যে দিয়ে যায় । তা অনেকেই উপলব্ধি করতে পারে না । ফেসবুকের এই যুগে সবাই চাইলেই তাদের কষ্টের কথা গুলো শেয়ার করতে পারে । ছেলেরাও চাইলে আমাদের এখান থেকে এই স্ট্যাটাস গুলো নিয়ে নিজের ওয়ালে শেয়ার করতে পারেন । এতে করে হয়তো একটু মানসিক শান্তি পাবেন । যাহোক আসুন তাহলে শুরু করি ।

ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস :

১। ছেলেরা খুব সহজে কান্না করে না, যদি না কস্টটা পাহাড় সম হয় ।

২। ছেলেরা কখনো একজনকে নিয়ে চিন্তা করে না, তাদের মাথায় থাকে ৪ নারী । মা, বোন, স্ত্রী ও কন্যা ।

৩। হাজার কস্টের মাঝেও ছেলেরা দায়িত্ব নিতে জানে । কারণ এটাই তাদের বৈশিষ্ট্য ।

৪। ছেলেদের মন খারাপ বলতে কিছু নেই। তাদের থাকে অভাব। হয় টাকার, নয়তো ভালোবাসার।

৫। বেশীর ভাগ ছেলেরাই সংসারে সবার কথা ভাবে, সবাইকে ভালো রাখতে চেষ্টা করে ।

৬। ছেলেদের কান্নায় কখনও ছলনা থাকে না । তাদের কান্নাই প্রকৃত বাস্তবতা ।

৭। ছেলেরা কখনই টাকা বা খাবার এর জন্য নষ্ট হয় না, তাঁরা নষ্ট হয় অযত্ন আর অবহেলায় ।

৮। বাস্তবতার কঠিন রূপ একমাত্র মধ্যবিত্তের ছেলেরাই দেখতে পায় ।

৯। ছেলেদের ভালোবাসায় কোন অভিনয় থাকে না, যাকে ভালোবাসে মন থেকেই তাকে পেতে চায় ।

১০। প্রেমের জন্য ছেলেরাই সবচেয়ে বড় নিদর্শন গুলো রেখে গিয়েছে ।ছেলেদের কষ্টের স্ট্যাটাস

১১। পরিবারকে ভালো রাখতে ছেলেরা সব কঠিন কাজকেই বরণ করে নেয় ।

১২। ছেলেরাই নিজেকে বাজি রেখে পরিবারকে বাঁচিয়ে রাখে ।

১৩। ছেলেরা কখনই নিজের কথা ভাবে না, সংসারের সবার কথা তাদের ভাবায় ।

১৪। সংসারের বড় ছেলেরা যে পরিমান ত্যাগ করে সে পরিমান ত্যাগ আর কেউ করে না ।

১৫। একটি পরিবারে বড় ছেলের অবদান সবচেয়ে বেশী থাকে ।

১৬। একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের বড় ছেলে বাস্তবতা যতটা উপলব্ধি করে তা আর কেউ করে না ।

১৭। যে পরিবারে বাবা থাকে না, সে পরিবারের বড় ছেলেই সব দায়িত্ব কাঁদে নিতে হয় ।

১৮। একজন ছেলেই কেবল তার সব সুখ বিসর্জন দিয়ে পরিবারকে সুখে রাখতে পারে ।

১৯। নিজের পরিবারকে সুখে রাখার জন্য একজন পুরুষ প্রায় সব কাজই করতে পারে ।

আরো পড়ুনঃ>>> বাংলা স্ট্যাটাস বাস্তবতা

ছেলেদের ফেসবুক স্ট্যাটাস :

১। বেশীর ভাগ পুরুষ জানেই না তাঁরা তাদের স্ত্রীকে অকারেই রাগিয়ে দিচ্ছে ।

২। জীবন মানেই যুদ্ধ আর সেই যুদ্ধে ছেলেরা হলো সৈনিক আর মেয়েরা হলো সঙ্গী ।

৩। পৃথিবীর সব ছেলেরাই চায় সবাইকে নিয়ে একসাথে সুখী হতে ।

৪। ছেলেদের জীবনের বেশীর ভাগ সময় কেটে যায় পড়া লেখায় আর বাকি জীবন কাটে দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে ।

৫। ছেলেরা দায়িত্ব নিয়ে সব কিছু সুন্দর করে চালিয়ে যেতে পারে শত কষ্ট সাথে নিয়ে ।

৬। ছেলেদের মন খারাফের হাজারো কারণ থাকে মেয়েরা অকারণেই মন খারাফ করতে পারে ।

৭। ছেলেদের চোখের জলে লুকিয়ে থাকে হাজারো দুঃখ বেদনা, মেয়েদের চোখের জলে ছলনা ।

৮। একসময় ছেলেরা ছিলো সংসারের কর্তা বর্তমানে ছেলেরা হলো সংসারের কর্মী ।ছেলেদের ফেসবুক স্ট্যাটাস

৯। বেশীর ভাগ ছেলে কষ্ট পায় আপন জন থেকে, কারণ তাঁরা আপন জনের জন্যই বেশী করে ।

১০। ছেলের ছোট থেকেই দায়িত্ত কাঁধে নেয়া শিখে নেয়া উচিৎ, বড় হওয়ার আগেই তাদের কাঁধে দায়িত্ব চলে আসতে পারে ।

১১। ছেলেরা কখনো নষ্ট হয় না, এই সমাজ তাদের নষ্ট করতে বাধ্য করে ।

১২। জীবনের শত দুঃখ কষ্ট সাথে নিয়ে ছেলেরা এগিয়ে চলে, ক্লান্তহীন জীবন পাড়ি দেয় একা একা ।

১৩। ছেলের জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলোর মধ্যে একটি বন্ধু । কোন ছেলেই বন্ধু ছাড়া বড় হতে পারে না

ছেলেদের ইমোশনাল পোস্ট :

নিচে আরো অনেক গুলো ছেলেদের কষ্টের ফেসবুক স্ট্যাটাস দেয়া হয়েছেঃ

১। ছেলেরা বিয়ের আগে বাবা-মা ভাই বোন এর দায়িত্ব মাথায় নিয়ে আর বিয়ের পর স্ত্রী সন্তানের দায়িত্ব মাথায় নিয়ে চলে ।

২। একটি সংসার টিকিয়ে রাখতে ছেলেরা যতটা ত্যাগ করে, মেয়েরা যদি এর সামান্য কিছু ত্যাগ করতো, তাহলে অকালে সংসার ভেঙ্গে যেত না ।

৩। একটি ছেলের কাছে তার বোন, মা অথবা তার স্ত্রী কন্যা যতটা নিরাপদ এর ছেয়ে বেশী নিরাপত্তা কোন সামরিক বাহিনীও দিতে পারবে না ।

৪। ছেলেরা সবাইকে নিয়ে বাঁচতে চায়, কিন্তু ভাগ্যের কাছে তারা হেরে যায়, সবাই এক সময় তাকে ত্যাগ করে ।

৫। ছেলেরা জন্ম থেকে দায়িত্তের বোঝা মাথায় নিয়ে বড় হতে থাকে, এবং সারা জীবন তা বয়ে বেড়ায় ।

৬। ছেলেদের খুব সহজে মন খারাফ হয় না, যদি মন খারাফ হয় তাহলে বুঝতে হবে বড় কোন আঘাত পেয়েছে ।

৭। ছেলেদের কোন সাহায্যকারী থাকে না, তারা একাই বড় হয় একাই সব কিছু সামলে নেয় ।

৮। ছেলেরা যত কষ্টই করুক, তাতে তাদের কষ্ট হয় না, কষ্ট হয় তখই যখন আপন কেউ অবহেলা করে ।

৯। ছেলেদের জীবনে কোন দুঃখ থাকতে নেই, কারণ সবার কথা চিন্তা করতে করতেই তাদের জীবন শেষ হয়ে যায় ।

১০। ছেলেরা কখনো একা ভালো থাকার কথা চিন্তা করে না, তারা সবাইকে নিয়ে ভালো থাকতে চায় ।

ছেলেদের কষ্টের মেসেজ :

1. কেন এত মায়ায় জড়িয়ে নিলে আমাকে?
যতটা আমি তোমাকে গ্রহণ করি, ততটাই ভালবাসো আমাকে?

2. আমায় কখনো ভুলে যাওয়ার কথা ভেবো না,
হয়তো কাছে আসার মুহূর্ত গুলো আমাকে ভুলে থাকতে দেবে না।

3. আমার ভালোবাসা দিয়ে তোমার জীবনে ফেলে আসা সমস্ত বিস্মৃতি গুলো মুছে দেবো,
তোমার জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত আরও রঙিন করে তুলবো।

4. এত কাছে আসা শুধুই লাগে সান্তনা,
আগে কখনো মনে হয়নি তোমাকে না পাওয়ার যন্ত্রনা।

5. আজ সমস্ত বাধার প্রাচীর জয় করে আসবো আমি,
তোমার সবটুকু আয়োজন নিয়ে শুধু অপেক্ষা করো তুমি।

6. আমি তোমাকে দেখলেই কেন যেন বেসামাল হয়ে যাই,
উড়তে থাকা পতঙ্গের মতোই বারবার তোমার কাছে ছুটে যাই।

ছেলেদের ইমোশনাল স্ট্যাটাস :

মধ্যবিত্ত ছেলেদের আরো কিছু কষ্টের ইমোশনাল ফেসবুক স্ট্যাটাস নিচে পাবেনঃ

১. একজন ছেলের আসলে কষ্ট হয় তার অভাবে, স্বভাবে নয়। হয়তো সেটা টাকার অভাব না হয় ভালোবাসার অভাব।

২. ছেলেরা কখনো মায়া কান্না করতে জানেনা। তাদের প্রতিটি অশ্রু জল ই প্রকৃত বাস্তবতা।

৩. নির্ঘুম রাত আর একটা সিগারেট ই জানে, একজন ছেলের প্রকৃত অবস্থাটা কি। কতটা অসহায়ত্বের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে সে।

৪. প্রাণোচ্ছল কিশোর ছেলেটাও একসময়, দায়িত্বের বোঝা মাথায় নিয়ে চুপচাপ হয়ে যায়। তার সুন্দর হাসিটা এক সময় মিলিয়ে যায়।

৫. আজকে যে ছেলেটা সফল ব্যক্তি হয়ে সবার মন জয় করে নিয়েছে, আপনি আমি হয়তো জানি না এই ছেলেটা কত স্বপ্ন মাটি চাপা দিয়ে এসেছে।

৬. প্রতিটি মধ্যবিত্ত ছেলেই জানে, জীবনটা যে রূপকথার গল্প নয়।

৭. কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি দাঁড়িয়ে, অনেক ছেলেকেই নিজের খুশিকে বিসর্জন দিতে হয়। তাইতো এক সময় প্রত্যেকটা ছেলে প্রচন্ড রকমের গম্ভীর হয়ে যায়।

৮. একজন ছেলে তখনই খুব কষ্ট হয়, যখন কেউ কাছে এসে তারপর দূরে সরে যায়।

৯. হয়তো চাকরির অভাবে কত ছেলে, তার ভালোবাসার মানুষকে হারিয়ে ফেলে। যার চলে যায়, সেই বুঝে হায় বিচ্ছেদে কি যন্ত্রনা!

১০. যে ছেলেগুলো ছোটবেলা থেকেই কারো ভরসার প্রতীক হয়ে ওঠে, তারাই দিনশেষে পরাজিত সৈনিকের মত ডুকরে কেঁদে মরে।

১১. সদ্য কৈশোর পেরিয়ে যৌবনে পা রাখা ছেলেটাও, প্রচন্ড উচ্ছ্বাস নিয়ে জীবনের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে। অথচ শেষ পর্যন্ত কত স্বপ্নকেই গলা টিপে হত্যা করতে হয়।

১২. একজন ছেলের অর্থনৈতিক মানদন্ড ই তার পরিচয়। তার যত বেশি অর্থ, এই সমাজে সে তত বেশি সমাদৃত।

১৩. বয়স ত্রিশ পেরিয়ে গেলে, একজন ছেলের কপালে চিন্তার ভাঁজ দেখা যায়। চেহারায় বয়সের বলিরেখার ছাপ পড়ে। আর অবশ্যই সেটা দুঃখের আঘাতে।

১৪. একজন ছেলে চাকরি পাওয়ার পরেই সে নিজের জন্য নয়, বরং বাবার জন্য নতুন চশমা কিনে, কেউ কিনে মায়ের জন্য নতুন শাড়ি।

১৫. প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ছেলেরাই দেবদাস হয়। খুব কম মেয়েরাই পার্বতী কিংবা চন্দ্রমুখী হতে পারে।

১৬. একজন ছেলে যখন বাবা হয়ে ওঠে, তখন তার শার্টটা আর পুরনো হয় না। এক জুতো দিয়ে সে কয়েক বছর পার করে দেয়।

১৭. একজন মা যখন সন্তান ধারণ করে তখন শুধুমাত্র সেই সন্তানের চিন্তা টুকুই করে। ‌ অথচ একজন ছেলে তখন বাবা হিসেবে পুরো সংসারের চিন্তা মাথায় নিয়ে ঘুরে।

১৮. একজন ছেলে যখন বেকার থাকে। তখন সে আর আগের মতো আড্ডাবাজ হয় না, হাসি খুশি থাকেনা। খুব আর যন্ত্রণায় তার প্রতিটি মুহূর্ত কাটতে থাকে।

১৯. একজন ছেলে রাস্তায় দাঁড়িয়ে নিশ্চুপ বৃষ্টিতে ভিজে যাচ্ছে। হয়তো প্রিয়জনকে হারিয়ে, নয়তো চাকরি হারিয়ে, নয়তো ঋণের বোঝা কাধে নিয়ে।

২০. একজন ছেলে কখনোই হাউমাউ করে কাঁদে না। বরং তার কান্না হয় নিঃশব্দে, নিভৃতে। যাতে কেউ না দেখে, কেউ না বোঝে, কেউ না শোনে।

শেষ কিছু কথাঃ

এখানে আমরা শুধু মাত্র ছেলেদের কষ্টের ছন্দ স্ট্যাটাস ক্যাপশন ও কথা গুলোই বলেছি । তার মানে এই নয় যে মেয়েরা কোন কষ্ট করে না । জগত সংসারে ছেলেদের যেমন ত্যাগ আছে, তেমনি মেয়েদেরও আছে । আজ আমরা শুধু মাত্র ছেলের কথাই বললাম, কারণ আমাদের আজকের বিষয়ই হলো ছেলেদের নিয়ে । পরে অন্য কোন পোস্টে চেষ্টা করবো মেয়েদের কষ্টের কথা গুলো তুলে ধরতে । সে পর্যন্ত আমাদের সাথেই থাকুন । অনেক অনেক ধন্যবাদ আমাদের এই লিখাটি মন দিয়ে পড়ার জন্য ।

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *