সরিষা ফুল নিয়ে ক্যাপশন

সরিষা ফুল নিয়ে ক্যাপশন স্ট্যাটাস উক্তি বাণী কিছু কথা নিয়ে আমাদের আজকের পোস্ট । আমরা অনেক সময় সরিষা ফুলের সাথে ছবি তুলি । আর সেই ছবি যখন ফেসবুকে দিতে যাই, তখন ছবির সাথে একটি চমৎকার ক্যাপশন দেয়ার প্রয়োজন পড়ে । আর তাই আমরা নিয়ে এসেছি কিছু সুন্দর সুন্দর ছন্দ কবিতা আর ক্যাপশন ।

গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী আকর্ষণ হলো সরিষা ফুল। শীতকালে দিগন্ত জুড়ে হলুদ সরষে ক্ষেত এর নজরকাড়া সৌন্দর্য মুগ্ধ করে আমাদের সকলকে। আজকে আমরা তুলে ধরব সরিষা ফুল নিয়ে কিছু কবিতাংশ ও ক্যাপশন।

সরিষা ফুল নিয়ে ক্যাপশন :

১. ” ঘুম হতে আজ জেগেই দেখি শিশির-ঝরা ঘাসে,
সারা রাতের স্বপন আমার মিঠেল রোদে হাসে।
আমার সাথে করতে খেলা প্রভাত হাওয়া ভাই,
সরষে ফুলের পাঁপড়ি নাড়ি ডাকছে মোরে তাই।”
— পল্লীকবি জসীমউদ্দীন

২. ” সরষে ফুলে মাঠ ভরেছে ছড়িয়ে হলুদ রং
কৃষকেরা দুঃখ ভুলে গেছে সুখের গান।
মনের মত ফসল তুলে ভরবে তাদের ঘর
দুঃখ রহিবে না আর কাটবে দেনার ভার।”

৩. “ভোর সকালে শীতল ছোঁয়া, শিশির ভেজা ঘাসে,
পুব আকাশে সোনার রবি, সকাল হলে হাসে।

ঘরের চালে কুমড়ো ফুলে, সরিষা ফুল মাঠে,
ভোর সকালে শিশু-কিশোর চাদর গায়ে পাঠে।”সরিষা ফুল নিয়ে ক্যাপশন স্ট্যাটাস

৪. সরিষা ফুলের মনমুগ্ধকর দৃশ্য দেখে জুড়িয়ে যায় সবার প্রাণ। দিগন্তজোড়া মাঠের মুক্ত বাতাস ছড়িয়ে দেয় মধুর ঘ্রাণ। কিন্তু কয়দিন পর আর সরিষা ফুল থাকবে না এ সরিষা ক্ষেতে! তখন মৌমাছিরাও উড়াল দিয়ে চলে যাবে অন্যত্র।

৫. শীতের দিনে কুয়াশায় ঢাকা থাকে রাস্তাঘাট, কাস্তে হাতে কৃষক ছুটে চলে ফাঁকা মাঠের দিকে। খেজুর গুড়ের পিঠা পায়েস এর মৌ মৌ করা ঘ্রাণ আর সরষে ফুলের মন জুড়ানো দৃশ্য শীতকে করে তোলে অনন্য।

৬. সরিষা ফুলের মত এত বেশি ফুল একসাথে সাধারণত দেখা যায় না। মাঠের পর মাঠ সরিষা ফুলে ছেয়ে থাকে। কুয়াশা ঢাকা সকালে ঘুম ভেঙেই আঙিনায় হলুদ কার্পেটের মত এ দৃশ্য দেখতে কার না ভালো লাগে।

৭. সরিষা ফুল সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য চাষ করা হয় না। সরিষা একটি ফসলি উদ্ভিদ যা চাষ হয় শীতকালে। সরিষার তেল পাওয়ার উদ্দেশ্যেই মূলত সরিষা চাষ হয়। কিন্তু গ্রাম বাংলার সৌন্দর্য বর্ধনে সরিষা ফুল সরিষা ক্ষেত যুগ যুগ ধরে ঐতিহ্যবাহী ভূমিকা পালন করে চলেছে।

৮. সরিষা ফুলে যখন ছেয়ে যায় সরষে ক্ষেত, দলে দলে মৌমাছিরা করে বেড়ায় মধুর আশায়। কিন্তু যখন আর সরিষা ফুল থাকে না, মৌমাছিদের ও আর দেখা পাওয়া যায় না! জীবনটা আসলে এমনই!

সরষে ফুল নিয়ে ক্যাপশন স্ট্যাটাস পোস্ট নিয়ে আমাদের এই লেখা । আমাদের এই লিখা গুলো পড়ে অনেক মজা পাবেন আশাকরি । আমরা সব সময় আপনাদের জন্য ভালো ভালো লেখা দেয়ার চেষ্টা করি । তাই এখানেও কিছু দারুণ দারুণ লেখা কবিতা ছন্দ পোস্ট করা হলো । আসুন তাহলে দেখে নেয়া যাক ।

সরষে ফুল নিয়ে ক্যাপশন কবিতা ছন্দ :

১.
সরষে ফুল ছিঁড়ো না, এ ভুল করো না।
ফুলে ফুলে ভরে উঠুক এই উদ্যান

২.
মাঠজুরে বিন্যস্ত সরষে ফুল
দিগন্তে সুদীর্ঘ নীল আকাশ
ফুলের মধু পেতে উড়ছে ভ্রমরা
তব গুঞ্জনে মোহিত কুঞ্জবন।

৩.
তোমার হলুদ শাড়ির আচল
যেন বিষন বিকেলে
এক মুঠো সরষে ফুল
মনের ভুলে তোমাকে চাই
ভুল করে তুমি ফুল হয়ে যাও!

৪.
মুহুর্মুহু বাতাস বইছে এ পথে
পথের এক হলুদ মাঠ
মাঠভর্তি সরষে ফুলে সমারোহ
আহা! আকুলিবিকুলি করে এই প্রাণ।

৫.
এই গান শুনে রাখো প্রান্তর
আমাকে আর ডেকো না
আমি মিশব না সরষে ফুলের ঘ্রাণে
আমি মিশব নীল নীল আসমানে

৬.
সরষে ফুলে ভর করে
মধু পানে ব্যস্ত ভ্রমর
আমার হৃদয় জানে
কতটুকু প্রেম আছে
তোমার জন্য আমার।সরষে ফুল নিয়ে ক্যাপশন কবিতা ছন্দ

৭.
এক সমুদ্র ভালবাসা বুকের ভিতরে
তোমার জন্য পুষে রেখেছি যতনে
কোনো এক বিকেলে অবসর পেলে
সরসে ফুলের বাগানে দেখা করে
নিয়ে যেও ভালবাসা আর ফুল।

৮.
আমি থাকব চিলের ডানায়
দূর থেকে দেখব তোমায়
তুমি থাকবে অনেক একা
হলদে সরষে ফুলের দুনিয়ায়।

৯.
হলুদ ফুল হলুদ ফুল
আমারে কি চেনো?
আমি তোমার অমরা
সরষে ফুলের ভ্রমরা।

১০.
ভোর বেলায় মৃদু সফেদ কুয়াশা মাড়িয়ে
হাঁটি হাঁটি পা পা করে এগিয়ে যাব
সরষে ফুলের পাশে,
যেখানটায় আমাদের শৈশব কেটেছে
আনন্দে উল্লাসে।

১১.
সরষে ফুলের সুবাসে
মেতেছে মৌ, হেসেছে বৌ
হিমশীতল হাওয়ায় ভাসিয়ে
মৌমাছি ফুলের মধু খোঁজে আসে।

১২.
হলুদের সাথে পাল্লা দিয়ে
ফুটেছে সরষে ফুল
আমার জীবনও এইরকমই
হারিয়ে ফেলেছে কূল।

১৩.
এসো তোমারে রাঙিয়ে দেব ভালোবাসায়
কানে পড়িয়ে দেব প্রকৃতির দূল
চোখে থাকবে হলুদাভ দেয়াল
সরষে ফুল সরষে ফুল।

১৪.
সারা রাতের আকাশ যখন মিঠে রোদে হাসে
সরসে ফুলের সুবাস তখন ভীষণ করে আসে
এই প্রাণ এই ঘ্রাণ, আপন বড্ড লাগে
সরষে ফুলের সৌন্দর্য ঝরে কুসুম বাগে।

১৫.
তোমাকে ভেবেছিলাম হলুদ সরষে
পরম যত্নে বুকে গহীনে লুকিয়েছিলাম
গহীনের নিঃশব্দ আঘাত আমাকে ভেঙ্গেছে বহু আগে
বুঝিনি আমি তুমি এক ছদ্মবেশী পার্থেনিয়াম।

১৫.
হে সরষে ফুল
হলুদ রূপসী তুমি
আমার মনের দূল,
প্রিয় সরষে ফুল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x