বসন্তের কবিতা ও ছন্দ

বসন্তের ৩ টি কবিতা ও ছন্দ দিলাম এখানে । কবিতা গুলো ছন্দ মিলানো । তাই আশাকরি অনেক ভালো লাগবে বসন্তের এই ছন্দ মিলানো কবিতা গুলো । এই কবিতা গুলো লিখেছেন, আমাদের একজন বোন সাকিসেফ উম্মে ফাতেমা । তো চলুন দেখে নেয়া যাক আমাদের সেই প্রিয় কবিতা গুলো । আরো আছেঃ>> হাসি নিয়ে কবিতা ও কথা ।বসন্তের কবিতা

বসন্তের কবিতা ও ছন্দ

বসন্তের অপেক্ষা

বসন্তের করাঘাত রিক্ত হিয়ার দ্বারে
কোকিলের সুর উদাসী করেছে মোরে,
সুরের ঐকতান কোথা হারালো
এমনি করে কতো বসন্ত পেরোলো।

অষ্টাদশী হৃদয়ে প্রনয়ের মনোভাব
বৃক্ষ শাখে পক্ষীর কলোরব,
মহুয়া মালতী রুদ্রপলাশ
তবো উপেক্ষায় হলেম হতাশ।

তবুও প্রতিক্ষার প্রহর হয় না শেষ-
বসন্তের সজ্জায় মিশে প্রনয়ের রেশ;
ভ্রমরা চেনাবে সখা পথ,
কুসুমিত কোমল পুষ্প রথ।

হৃদয় আঙ্গিনায় প্রজ্জ্বলিত আশার প্রদীপ,
বসন্ত তবো হিয়ায় জাগবে অন্তরীপ!
কন্টক নয় ফুলেল বান যে চাই
আপনাকে ভুলি আপনারই তরুছায়ায়।

Read More >>  Bangla funny poem

ফাগুন হাওয়ায় হিল্লোল উঠে শাখে
সে নেত্রে কি মোর প্রতিচ্ছবি রাখে?
দেবদারু ফুল উড়ায় শঙ্খচিলে
প্রেমের পসরা লুটায় হেলায় পড়ে।

বসন্তরূপ

বসন্ত এলো যে ধরায়
উদাসি কোকিলের সুর মন ভরায়,
কৃষ্ণচূড়ায় রাজপথ সাজে
সঙ্গীতের কলতান কানে বাজে।

মদন দেবের আশীর্বাদ
আবির রাঙ্গা চারিপাশ,
বউ কথা কও পাখি ডাকে
ছেলে বুড়ে সব আনন্দে মাতে।

ভ্রমরায় দল বেধে চলে
ফুল ফোটে কাননে কাননে,
বৃক্ষে নতুন পত্র-পল্লব জাগে
সবকিছু অপরূপ লাগে।

শীতের আমেজ মুছে যায়
প্রকৃতির রঙ্গিন সজ্জায়,
এতসব নতুনের ভিড়ে
রুক্ষতা কাটে ধীরে ধীরে।

নজরুল-রবি বন্দনা করছে যায়
সকল অঞ্জলি এখনও শুধু যে তার
বসন্তকে করিতে বরন-
পথে-প্রান্তরে চলে মহারন।

 

শুভাগমন

রিক্ত শীতের বিদায় হবে, বসন্ত যে দ্বারে,
পক্ষীরা সব সুর তুলেছে- বন্দনা তার তরে।

বৃক্ষ শাখে নব পল্লব- আমের শাখে মুকুল,
হোলিও এই বসন্ততেই; সবাই কৃষ্ণ গোকুল।

ললনারা রূপবতী বাসন্তী রং শাড়িতে,
কানাইরা সব লড়তে রাজি; দধি আছে হাড়িতে।

আগুনরঙা পলাশ ফুলে দৃষ্টির ঝলসানি,
মৌমাছিরা দল বেধেছে- আসছে ঋতুর রানি।

Read More >>  ভালোবাসার রোমান্টিক কবিতা অভিমানী

দোলনচাঁপা, কাঠালচাপা, ক্যামেলিয়ার ঘ্রানে;
প্রকৃতির নব সজ্জায় হাওয়া লাগে প্রানে।

বরিতে ঋতুরাজে, প্রয়াস চলে শত
উৎসবে মাতোয়ারা, মানবেরা যত।

ঘোড়া-দৌড় আর লাঠিখেলার ঐতিহ্যটাও আছে,
শরৎ এ তে উড়লে ঘুড়িও, বসন্তের রং আছে।

শুল্কপক্ষে গানের আসর, চৈতালী উৎসব-
সাধে কি আর ঋতুরাজে বন্দনা করে সব!

 

তুমি ফালগুন
সাইফুল

ফাগুন যে এসেছে ধরায়
বসন্তের আহবানে
ফুল কলিরা দুলছে দেখ
হাওয়ায় নেচে গেয়ে ।

ফাগুন যে এসেছে ধরায়
শীত গেল তাই চলে
কোকিল পাখি ডাকছে দেখ
কুহু কুহু বলে ।

ফাগুন যে এসেছে ধরায়
হলুদ গাধার ভীরে
রমণী রা আজ সাজছে দেখ
ফুল মালঞ্চ দিয়ে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *